রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে লিথুনিয়া

  • আপডেট সময় : ০৪:২০:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩
  • / 73

The Lithuanian flag flutters in Vilnius, Lithuania, in 2019. (Ints Kalnins/Reuters)

প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

রাশিয়া যদি তার প্রতিবেশী ও মিত্রদেশ বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করে, তাহলে মস্কোর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে বলে জানিয়েছে লিথুনিয়া।

লিথুনিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রোববার এক বিবৃতিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। খবর সিএনএনের।

বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া আর বেলারুশের এ পরিকল্পনা গোটা ইউরোপে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পদক্ষেপের ফলে ইউক্রেন যুদ্ধ এখন বেলারুশ পর্যন্ত বিস্তৃত হচ্ছে। পরে তা ধীরে ধীরে অন্য প্রতিবেশী দেশেও ছড়িয়ে পড়বে।

উল্লেখ্য পুতিন শনিবার ঘোষণা দিয়েছেন, প্রতিবেশী দেশ বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করবে মস্কো।

বেলারুশের সঙ্গে ইউক্রেনেরও বড় সীমান্ত রয়েছে। পুতিন বলেন, এটা অস্বাভাবিক নয়। দশকের পর দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্র এ ধরনের কাজ করছে। মিত্রদেশগুলোতে অনেক আগেই কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র।’

বিষয়টি নিয়ে বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকসান্দার লুকাশেঙ্কোর সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান পুতিন। তিনি বলেন, আমরা দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্রের মতো একই কাজ করব বলে একমত হয়েছি।

সম্প্রতি ইউক্রেনে ডিপ্লিটেড ইউরেনিয়ামসমৃদ্ধ গোলাবারুদ পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। এ নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন পুতিন।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেছিলেন, এমনটি করা হলে রাশিয়া এর জবাব দিতে বাধ্য হবে। এর পরপরই শনিবার বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে লিথুনিয়া

আপডেট সময় : ০৪:২০:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩

রাশিয়া যদি তার প্রতিবেশী ও মিত্রদেশ বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করে, তাহলে মস্কোর বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে বলে জানিয়েছে লিথুনিয়া।

লিথুনিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রোববার এক বিবৃতিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। খবর সিএনএনের।

বিবৃতিতে বলা হয়, রাশিয়া আর বেলারুশের এ পরিকল্পনা গোটা ইউরোপে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পদক্ষেপের ফলে ইউক্রেন যুদ্ধ এখন বেলারুশ পর্যন্ত বিস্তৃত হচ্ছে। পরে তা ধীরে ধীরে অন্য প্রতিবেশী দেশেও ছড়িয়ে পড়বে।

উল্লেখ্য পুতিন শনিবার ঘোষণা দিয়েছেন, প্রতিবেশী দেশ বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করবে মস্কো।

বেলারুশের সঙ্গে ইউক্রেনেরও বড় সীমান্ত রয়েছে। পুতিন বলেন, এটা অস্বাভাবিক নয়। দশকের পর দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্র এ ধরনের কাজ করছে। মিত্রদেশগুলোতে অনেক আগেই কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র।’

বিষয়টি নিয়ে বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকসান্দার লুকাশেঙ্কোর সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান পুতিন। তিনি বলেন, আমরা দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্রের মতো একই কাজ করব বলে একমত হয়েছি।

সম্প্রতি ইউক্রেনে ডিপ্লিটেড ইউরেনিয়ামসমৃদ্ধ গোলাবারুদ পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। এ নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন পুতিন।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেছিলেন, এমনটি করা হলে রাশিয়া এর জবাব দিতে বাধ্য হবে। এর পরপরই শনিবার বেলারুশে কৌশলগত পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।