বাংলাদেশকে ৪২৮০ কোটি টাকার ঋণ দিচ্ছে এডিবি

  • আপডেট সময় : ০৯:২২:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০২৩
  • / 65
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ঢাকা: বাংলাদেশের জন্য ৪০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি), যা বাংলাদেশি টাকায় ৪ হাজার ২৮০ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ১০৭ টাকা হিসাবে)।

এডিবির সাসটেইনেবল ইকোনমিক রিকভারি প্রোগ্রামের দ্বিতীয় সাবপ্রোগ্রামের আওতায় এই ঋণ প্যাকেজ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

 

মঙ্গলবার (১৩ জুন) এডিবির ঢাকা অফিস থেকে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঋণ অনুমোদনের বিষয়টি জানানো হয়। এ দিন ফিলিপাইনের ম্যানিলায় এডিবির প্রধান কার্যালয়ে এ ঋণ অনুমোদন করা হয়েছে।

এডিবি জানায়, রাজস্ব বাড়াতে, এই সাবপ্রোগ্রাম বাংলাদেশকে রাজস্ব বাড়াতে সাহায্য করবে। সরকারি ব্যয় এবং পাবলিক প্রকিউরমেন্টে দক্ষতা ও স্বচ্ছতা বাড়াতে, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সংস্কারকে উন্নত করতে এবং ক্ষুদ্র ব্যবসা ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ব্যাংকিং খাত থেকে স্বল্প সুদে সাশ্রয়ী মূল্যের অর্থ সংস্থানে সহায়তা করবে।

এই ঋণ কর্মসূচি নতুন আয়কর আইন গ্রহণের মাধ্যমে আয়কর সংগ্রহকে উন্নত করবে। করের ত্রুটি হ্রাস, সম্মতি এবং প্রয়োগ করতে উদ্যোগগুলোকে শক্তিশালী করবে এবং করের আওতাকে প্রসারিত করবে। এ বিষয়ে গৃহীত কার্যক্রমের মাধ্যমে ইলেকট্রনিক প্রকিউরমেন্ট এবং ইলেকট্রনিক পেমেন্ট সিস্টেমকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি পাবলিক প্রকিউরমেন্টে স্বচ্ছতা ও দক্ষতা বৃদ্ধি করবে।

এ বিষয়ে এডিবির দক্ষিণ এশিয়ার প্রধান ব্যবস্থাপনা অর্থনীতিবিদ আমিনুর রহমান জানান, জেন্ডার, জলবায়ু পরিবর্তন এবং ডিজিটাইজেশনের ওপর দৃঢ় ফোকাসসহ এই সাব-প্রোগ্রাম সরকারকে দরিদ্র এবং দুর্বলদের জন্য আয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করার উদ্যোগকে শক্তিশালী করতে সক্ষম করবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

বাংলাদেশকে ৪২৮০ কোটি টাকার ঋণ দিচ্ছে এডিবি

আপডেট সময় : ০৯:২২:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ জুন ২০২৩

ঢাকা: বাংলাদেশের জন্য ৪০ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি), যা বাংলাদেশি টাকায় ৪ হাজার ২৮০ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ১০৭ টাকা হিসাবে)।

এডিবির সাসটেইনেবল ইকোনমিক রিকভারি প্রোগ্রামের দ্বিতীয় সাবপ্রোগ্রামের আওতায় এই ঋণ প্যাকেজ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

 

মঙ্গলবার (১৩ জুন) এডিবির ঢাকা অফিস থেকে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঋণ অনুমোদনের বিষয়টি জানানো হয়। এ দিন ফিলিপাইনের ম্যানিলায় এডিবির প্রধান কার্যালয়ে এ ঋণ অনুমোদন করা হয়েছে।

এডিবি জানায়, রাজস্ব বাড়াতে, এই সাবপ্রোগ্রাম বাংলাদেশকে রাজস্ব বাড়াতে সাহায্য করবে। সরকারি ব্যয় এবং পাবলিক প্রকিউরমেন্টে দক্ষতা ও স্বচ্ছতা বাড়াতে, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সংস্কারকে উন্নত করতে এবং ক্ষুদ্র ব্যবসা ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ব্যাংকিং খাত থেকে স্বল্প সুদে সাশ্রয়ী মূল্যের অর্থ সংস্থানে সহায়তা করবে।

এই ঋণ কর্মসূচি নতুন আয়কর আইন গ্রহণের মাধ্যমে আয়কর সংগ্রহকে উন্নত করবে। করের ত্রুটি হ্রাস, সম্মতি এবং প্রয়োগ করতে উদ্যোগগুলোকে শক্তিশালী করবে এবং করের আওতাকে প্রসারিত করবে। এ বিষয়ে গৃহীত কার্যক্রমের মাধ্যমে ইলেকট্রনিক প্রকিউরমেন্ট এবং ইলেকট্রনিক পেমেন্ট সিস্টেমকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি পাবলিক প্রকিউরমেন্টে স্বচ্ছতা ও দক্ষতা বৃদ্ধি করবে।

এ বিষয়ে এডিবির দক্ষিণ এশিয়ার প্রধান ব্যবস্থাপনা অর্থনীতিবিদ আমিনুর রহমান জানান, জেন্ডার, জলবায়ু পরিবর্তন এবং ডিজিটাইজেশনের ওপর দৃঢ় ফোকাসসহ এই সাব-প্রোগ্রাম সরকারকে দরিদ্র এবং দুর্বলদের জন্য আয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করার উদ্যোগকে শক্তিশালী করতে সক্ষম করবে।