প্রবাসী শ্রমিকদের স্বামী-স্ত্রীকেও কাজের সুযোগ দিচ্ছে সৌদি

  • আপডেট সময় : ০১:৫১:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩
  • / 68
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সৌদি আরবে কর্মরত প্রবাসী কর্মীরা এখন থেকে তাদের স্বামী বা স্ত্রীকে দেশটিতে নিয়ে যেতে পারবেন। এর মাধ্যমে প্রবাসীদের স্বামী বা স্ত্রীরা দেশটিতে কাজের সুযোগ পাবেন। তবে এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সৌদি সরকারের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। সোমবার সৌদি আরবের ইংরেজি দৈনিক সৌদি গ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রীকে প্রবাসী শ্রমিকদের সঙ্গী নিয়োগ সংক্রান্ত একটি নীতিমালার অনুমোদন দিয়েছে। সেই নীতিমালায় প্রবাসী কর্মীদের স্বামী-স্ত্রী বা রক্তের সম্পর্ক রয়েছে এমন স্বজনদের সৌদিতে কাজের সুযোগের প্রস্তাব করা হয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ এই দেশটির অর্থনৈতিক কার্যক্রম ও বিভিন্ন পেশার সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে নতুন এ পদেক্ষপ নেওয়া হয়েছে। সৌদিতে কর্মরত প্রবাসী শ্রমিকদের পুরুষ ও নারী সঙ্গীদের কাজের অনুমতি সংক্রান্ত নীতিমালা বাস্তবায়নের প্রভাবের বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা একটি প্রতিবেদন পরীক্ষা করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এই অনুমোদন দিয়েছে।

এজন্য বিশেষ মানদণ্ড উৎড়ে গেলেই কেবল সঙ্গীদের সৌদি আরবে নেওয়া যাবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। তাদের নিয়োগ প্রয়োজনীয় চাকরির শূন্যপদের বিপরীতে হবে। তবে এই নিয়োগকে সৌদি আরবের নিতাকাত সৌদিকরণ কর্মসূচির শর্তাবলির সাথেও সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে।

এছাড়া সঙ্গী নিয়োগে পেশা বাছাই ও নিয়োগের সব শর্ত পূরণ হচ্ছে কি না তা বিবেচনা করবেন নিয়োগকর্তা। এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সৌদি সরকারের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী, পেশার নির্ধারিত যোগ্যতা বিবেচনার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

তবে সৌদি আরবের পুরুষ ও নারীদের জন্য সংরক্ষিত চাকরিতে সঙ্গী নিয়োগের অনুমতি নেই বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

প্রবাসী শ্রমিকদের স্বামী-স্ত্রীকেও কাজের সুযোগ দিচ্ছে সৌদি

আপডেট সময় : ০১:৫১:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩

সৌদি আরবে কর্মরত প্রবাসী কর্মীরা এখন থেকে তাদের স্বামী বা স্ত্রীকে দেশটিতে নিয়ে যেতে পারবেন। এর মাধ্যমে প্রবাসীদের স্বামী বা স্ত্রীরা দেশটিতে কাজের সুযোগ পাবেন। তবে এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সৌদি সরকারের বেঁধে দেওয়া নির্দিষ্ট কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। সোমবার সৌদি আরবের ইংরেজি দৈনিক সৌদি গ্যাজেটের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সৌদি আরবের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রীকে প্রবাসী শ্রমিকদের সঙ্গী নিয়োগ সংক্রান্ত একটি নীতিমালার অনুমোদন দিয়েছে। সেই নীতিমালায় প্রবাসী কর্মীদের স্বামী-স্ত্রী বা রক্তের সম্পর্ক রয়েছে এমন স্বজনদের সৌদিতে কাজের সুযোগের প্রস্তাব করা হয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ এই দেশটির অর্থনৈতিক কার্যক্রম ও বিভিন্ন পেশার সম্প্রসারণের অংশ হিসেবে নতুন এ পদেক্ষপ নেওয়া হয়েছে। সৌদিতে কর্মরত প্রবাসী শ্রমিকদের পুরুষ ও নারী সঙ্গীদের কাজের অনুমতি সংক্রান্ত নীতিমালা বাস্তবায়নের প্রভাবের বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা একটি প্রতিবেদন পরীক্ষা করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এই অনুমোদন দিয়েছে।

এজন্য বিশেষ মানদণ্ড উৎড়ে গেলেই কেবল সঙ্গীদের সৌদি আরবে নেওয়া যাবে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। তাদের নিয়োগ প্রয়োজনীয় চাকরির শূন্যপদের বিপরীতে হবে। তবে এই নিয়োগকে সৌদি আরবের নিতাকাত সৌদিকরণ কর্মসূচির শর্তাবলির সাথেও সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে।

এছাড়া সঙ্গী নিয়োগে পেশা বাছাই ও নিয়োগের সব শর্ত পূরণ হচ্ছে কি না তা বিবেচনা করবেন নিয়োগকর্তা। এক্ষেত্রে সঙ্গীকে অবশ্যই সৌদি সরকারের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী, পেশার নির্ধারিত যোগ্যতা বিবেচনার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

তবে সৌদি আরবের পুরুষ ও নারীদের জন্য সংরক্ষিত চাকরিতে সঙ্গী নিয়োগের অনুমতি নেই বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।