ঢাকা ০২:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে মৌমিতা পরিবহন যাত্রীর দেড় লাখ টাকা চুরি

  • আপডেট সময় : ০৭:০৭:৫০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২
  • / 144
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নুর ইসলাম নাহিদ :

নারায়ণগঞ্জ থেকে আশুলিয়া রোডে চলাচলকারী মৌমিতা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিনব কায়দায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার বমি করে সুমন রেজা নামে এক যাত্রীর দেড় লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনায় রোববার (৩০ অক্টোবর) রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোডের ফতুল্লা খান সাহেব আলী স্টেডিয়ামের সামনে এই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী সুমন রেজা ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার নূর হোসেনের ছেলে।

এর আগে ৭ অক্টোবর একই স্থানে মৌমিতা পরিবহনের আরেকটি বাসে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। সুমন রেজা বলেন, আমার মা অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি। হাসপাতালের বিল পরিশোধ করার জন্য আত্মীয়ের কাছ থেকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে ঢাকা সাইন্সল্যাব হতে মৌমিতা পরিবহনের একটি বাসে আসছিলাম। নারায়ণগঞ্জের জেলখানার মোড় আসার পথে বিকেল আড়াইটায় খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে আসার পর পাশে বসা এক ব্যক্তি আমার ওপর বমি করে।

‘এসময় বাসের হেলপার এসে আমাকে দাঁড়াতে বলেন। আমি দাঁড়ানো মাত্রই বমি পরিষ্কারে কথা বলে কৌশলে প্যান্টের পকেট থেকে টাকা নিয়ে দ্রুত বাস থেকে নেমে যায় ওই ব্যক্তি। বিষয়টি বাসের চালক ও হেলপারকে জানানোর পরও তারা বাসটি কিছু দূরে থামিয়ে আমাকে নামিয়ে দ্রুত চলে যায়।’

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। বাসটি শনাক্ত করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এর আগে ৭ অক্টোবর মৌমিতা পরিবহনের বাসে যে চুরির ঘটনা ঘটেছিল, সেটাও ছিল বমি করে চুরি করা। তখন রনি নামে এক যাত্রীর এক লাখ টাকা চুরি করা হয়। ঘটনার পর মৌমিতা বাসের চালক ইমরান ও হেলপার রতন মোল্লাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

নারায়ণগঞ্জে মৌমিতা পরিবহন যাত্রীর দেড় লাখ টাকা চুরি

আপডেট সময় : ০৭:০৭:৫০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩১ অক্টোবর ২০২২

নুর ইসলাম নাহিদ :

নারায়ণগঞ্জ থেকে আশুলিয়া রোডে চলাচলকারী মৌমিতা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিনব কায়দায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। এবার বমি করে সুমন রেজা নামে এক যাত্রীর দেড় লাখ টাকা চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনায় রোববার (৩০ অক্টোবর) রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোডের ফতুল্লা খান সাহেব আলী স্টেডিয়ামের সামনে এই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী সুমন রেজা ফতুল্লার সস্তাপুর এলাকার নূর হোসেনের ছেলে।

এর আগে ৭ অক্টোবর একই স্থানে মৌমিতা পরিবহনের আরেকটি বাসে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। সুমন রেজা বলেন, আমার মা অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি। হাসপাতালের বিল পরিশোধ করার জন্য আত্মীয়ের কাছ থেকে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে ঢাকা সাইন্সল্যাব হতে মৌমিতা পরিবহনের একটি বাসে আসছিলাম। নারায়ণগঞ্জের জেলখানার মোড় আসার পথে বিকেল আড়াইটায় খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে আসার পর পাশে বসা এক ব্যক্তি আমার ওপর বমি করে।

‘এসময় বাসের হেলপার এসে আমাকে দাঁড়াতে বলেন। আমি দাঁড়ানো মাত্রই বমি পরিষ্কারে কথা বলে কৌশলে প্যান্টের পকেট থেকে টাকা নিয়ে দ্রুত বাস থেকে নেমে যায় ওই ব্যক্তি। বিষয়টি বাসের চালক ও হেলপারকে জানানোর পরও তারা বাসটি কিছু দূরে থামিয়ে আমাকে নামিয়ে দ্রুত চলে যায়।’

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রিজাউল হক বলেন, অভিযোগ পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। বাসটি শনাক্ত করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এর আগে ৭ অক্টোবর মৌমিতা পরিবহনের বাসে যে চুরির ঘটনা ঘটেছিল, সেটাও ছিল বমি করে চুরি করা। তখন রনি নামে এক যাত্রীর এক লাখ টাকা চুরি করা হয়। ঘটনার পর মৌমিতা বাসের চালক ইমরান ও হেলপার রতন মোল্লাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।