ঢাকা ০১:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

  • আপডেট সময় : ০৫:১০:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ জুন ২০২৩
  • / 60
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

নোয়াখালী: দক্ষিণ আফ্রিকার ফ্রি স্টেট প্রদেশের বুসাবেলোতে রিগান ইসলাম (৩৫) নামে বাংলাদেশি এক ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে সে দেশের সন্ত্রাসীরা।

সোমবার (২৬ জুন) বাংলাদেশ সময় দিনগত রাত ৯টার দিকে বুসাবেলোতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে তাকে হত্যা করা হয়।

 

রিগান নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের শ্রীনদ্দি গ্রামের উলাল মিয়ার বাড়ির তাজু মিয়ার বড় ছেলে।

নিহতের ছোট ভাই ফাহিম মাহমুদ জানান, ২০০৯ সালে জীবিকার তাগিদে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাড়ি জমান তার বড় ভাই। এরপর ২০২১ সালে দেশে আসার পর প্রায় ৫ মাস ছুটি কাটিয়ে পুনরায় আফ্রিকা চলে যান।

সোমবার রাতে দোকানের মালামাল কিনে দোকানের সামনে আসেন তিনি। এ সময় গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে আগে থেকেই ওত পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে। এতে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে একাধিক গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

বাটইয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন শাহীন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার পরিবারের খোঁজ-খবর নেওয়া হয়েছে। নিহতের পরিবার তার মরদেহ আনতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

আপডেট সময় : ০৫:১০:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ জুন ২০২৩

নোয়াখালী: দক্ষিণ আফ্রিকার ফ্রি স্টেট প্রদেশের বুসাবেলোতে রিগান ইসলাম (৩৫) নামে বাংলাদেশি এক ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে সে দেশের সন্ত্রাসীরা।

সোমবার (২৬ জুন) বাংলাদেশ সময় দিনগত রাত ৯টার দিকে বুসাবেলোতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে তাকে হত্যা করা হয়।

 

রিগান নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার বাটইয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের শ্রীনদ্দি গ্রামের উলাল মিয়ার বাড়ির তাজু মিয়ার বড় ছেলে।

নিহতের ছোট ভাই ফাহিম মাহমুদ জানান, ২০০৯ সালে জীবিকার তাগিদে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাড়ি জমান তার বড় ভাই। এরপর ২০২১ সালে দেশে আসার পর প্রায় ৫ মাস ছুটি কাটিয়ে পুনরায় আফ্রিকা চলে যান।

সোমবার রাতে দোকানের মালামাল কিনে দোকানের সামনে আসেন তিনি। এ সময় গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে আগে থেকেই ওত পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে। এতে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে একাধিক গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

বাটইয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন শাহীন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার পরিবারের খোঁজ-খবর নেওয়া হয়েছে। নিহতের পরিবার তার মরদেহ আনতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন।