৫ বছরের দক্ষতা সনদ পাবেন সৌদি আগ্রহী কর্মীরা

  • আপডেট সময় : ০৫:২৬:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
  • / 93
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের জনশক্তি কর্মসংস্থান ব্যুরোর (বিএমইটি) বাংলাদেশি কর্মীদের স্কিল ভেরিফিকেশন বিষয়ে এক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

এর ফলে সৌদি আরবে যেতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি দক্ষ/আধা দক্ষ কর্মীদের বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতা যাচাই করে সনদ দেওয়া হবে, সনদের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর।

এই সনদ থাকার ফলে সৌদি আরবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং বেতন-ভাতাদি ও ওই বিষয়ের দক্ষতা অনুযায়ী চাকরি পাওয়া যাবে। এ সনদের মাধ্যমে একবার সৌদি আরব গেলে আর কোনো পরীক্ষা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।

সৌদি আরবের মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে এই স্কিল ভেরিফিকেশনের কাজ বাংলাদেশে করা হবে। যে সকল বিষয়ে এই স্কিল ভেরিফিকেশন করা হবে তা হলো—প্লাম্বিং, ইলেকট্রিশিয়ান, মেকানিক, ওয়েল্ডিং, কার্পেন্টার পেইন্টার, প্লাস্টারার, বিল্ডারসহ মোট ২৩টি বিষয়ে এ স্কিল ভেরিফিকেশন দেওয়া হবে।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী চুক্তি স্বাক্ষর বিষয়ে বলেন, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর চুক্তিটি স্বাক্ষর হয়েছে, আশা করি আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ/ আধা দক্ষ আরও কর্মীরা সনদ নিয়ে সৌদি আরবে আসবে। এর ফলে সৌদি আরবে ভালো চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং সৌদি আরব থেকে আমাদের রেমিট্যান্স প্রবাহ আরও বৃদ্ধি পাবে।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরের সময় বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

৫ বছরের দক্ষতা সনদ পাবেন সৌদি আগ্রহী কর্মীরা

আপডেট সময় : ০৫:২৬:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে দেশটির মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বাংলাদেশের জনশক্তি কর্মসংস্থান ব্যুরোর (বিএমইটি) বাংলাদেশি কর্মীদের স্কিল ভেরিফিকেশন বিষয়ে এক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

এর ফলে সৌদি আরবে যেতে ইচ্ছুক বাংলাদেশি দক্ষ/আধা দক্ষ কর্মীদের বিভিন্ন বিষয়ে দক্ষতা যাচাই করে সনদ দেওয়া হবে, সনদের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর।

এই সনদ থাকার ফলে সৌদি আরবে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং বেতন-ভাতাদি ও ওই বিষয়ের দক্ষতা অনুযায়ী চাকরি পাওয়া যাবে। এ সনদের মাধ্যমে একবার সৌদি আরব গেলে আর কোনো পরীক্ষা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না।

সৌদি আরবের মানবসম্পদ ও সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীনে এই স্কিল ভেরিফিকেশনের কাজ বাংলাদেশে করা হবে। যে সকল বিষয়ে এই স্কিল ভেরিফিকেশন করা হবে তা হলো—প্লাম্বিং, ইলেকট্রিশিয়ান, মেকানিক, ওয়েল্ডিং, কার্পেন্টার পেইন্টার, প্লাস্টারার, বিল্ডারসহ মোট ২৩টি বিষয়ে এ স্কিল ভেরিফিকেশন দেওয়া হবে।

সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী চুক্তি স্বাক্ষর বিষয়ে বলেন, দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর চুক্তিটি স্বাক্ষর হয়েছে, আশা করি আগামী দিনে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ/ আধা দক্ষ আরও কর্মীরা সনদ নিয়ে সৌদি আরবে আসবে। এর ফলে সৌদি আরবে ভালো চাকরি পাওয়া সহজ হবে এবং সৌদি আরব থেকে আমাদের রেমিট্যান্স প্রবাহ আরও বৃদ্ধি পাবে।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকায় এ বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরের সময় বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শহীদুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ঈসা বিন ইউসুফ আল দুহাইলান ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ উপস্থিত ছিলেন।