সীমান্ত খোলার ঘোষণা স্থগিত করলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট সময় : ০৫:৫৬:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
  • / 371
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিদেশিদের জন্য মালয়েশিয়ায় প্রবেশে শর্ত শিথিল করে পহেলা মার্চ থেকে সীমান্ত পুরোপুরি খোলার ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল মার্চ থেকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রয়োজন নেই। এতে বিদেশিদের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফেরে। কিন্তু সীমান্ত খোলার ঘোষণার প্রায় ৪ দিন পর আবারো সেটি স্থগিত করে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরী ইয়াকুব।

বৃহস্পতিবার (১১ ফ্রেব্রুয়ারি) স্থানীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী এ ঘোষণা দেন।

এর আগে ন্যাশনাল রিকভারি কাউন্সিলের(এনআরসি) চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন এক সংবাদ সম্মেলন করে সীমান্ত খোলার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরী ইয়াকুব বলেন, পহেলা মার্চে সীমান্ত খোলার ঘোষণাটি ছিল এনআরসি’র সুপারিশ মাত্র। তাই এ বিষয়ে আরো যথাযথ আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এর আগে অবশ্যই পর্যটন, শিল্প ও অন্যান্য সেক্টরের সাথে আলোচনা করে তাদের মতামতের ভিত্তিতে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেুয়া হবে। তবে পহেলা মার্চেই খুলছে না সীমান্ত। রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পরিষদ এবং মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের পরই আমরা এই বিষয়ে নতুন ঘোষণা দেব।

এদিকে মালয়েশিয়ায় আবারো নতুন করে করোনা ঢেউ শুরু হয়েছে। সাড়ে ৩ কোটি জনসংখ্যার দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা সংক্রমণ প্রায় ২০ হাজারে পৌঁছেছে। মালয়েশিয়ার বেশির ভাগ লোকজন করোনার ডাবল ডোজ টিকা গ্রহণ করে এখন বুস্টার ডোজ গ্রহণ করছেন। এই মুহূর্তে নতুন করে লকডাউনের কোনো আভাস না পাওয়া গেলেও সরকার বলছে আলোচনার পর ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারণ হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

সীমান্ত খোলার ঘোষণা স্থগিত করলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৫:৫৬:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

বিদেশিদের জন্য মালয়েশিয়ায় প্রবেশে শর্ত শিথিল করে পহেলা মার্চ থেকে সীমান্ত পুরোপুরি খোলার ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। বলা হয়েছিল মার্চ থেকে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রয়োজন নেই। এতে বিদেশিদের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফেরে। কিন্তু সীমান্ত খোলার ঘোষণার প্রায় ৪ দিন পর আবারো সেটি স্থগিত করে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরী ইয়াকুব।

বৃহস্পতিবার (১১ ফ্রেব্রুয়ারি) স্থানীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী এ ঘোষণা দেন।

এর আগে ন্যাশনাল রিকভারি কাউন্সিলের(এনআরসি) চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন এক সংবাদ সম্মেলন করে সীমান্ত খোলার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরী ইয়াকুব বলেন, পহেলা মার্চে সীমান্ত খোলার ঘোষণাটি ছিল এনআরসি’র সুপারিশ মাত্র। তাই এ বিষয়ে আরো যথাযথ আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এর আগে অবশ্যই পর্যটন, শিল্প ও অন্যান্য সেক্টরের সাথে আলোচনা করে তাদের মতামতের ভিত্তিতে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেুয়া হবে। তবে পহেলা মার্চেই খুলছে না সীমান্ত। রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা পরিষদ এবং মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের পরই আমরা এই বিষয়ে নতুন ঘোষণা দেব।

এদিকে মালয়েশিয়ায় আবারো নতুন করে করোনা ঢেউ শুরু হয়েছে। সাড়ে ৩ কোটি জনসংখ্যার দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা সংক্রমণ প্রায় ২০ হাজারে পৌঁছেছে। মালয়েশিয়ার বেশির ভাগ লোকজন করোনার ডাবল ডোজ টিকা গ্রহণ করে এখন বুস্টার ডোজ গ্রহণ করছেন। এই মুহূর্তে নতুন করে লকডাউনের কোনো আভাস না পাওয়া গেলেও সরকার বলছে আলোচনার পর ভবিষ্যৎ করণীয় নির্ধারণ হবে।