৩০ জানুয়ারী থেকে শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু ইউএস-বাংলার

  • আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২
  • / 290
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
নিজস্ব প্রতিবেদক >
মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। আগামী ৩০ জানুয়ারী পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে একাদশ আন্তর্জাতিক রুট হিসেবে প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে ছয়দিন ঢাকা-শারজাহ-ঢাকা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা। শারজাহ-তে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের বহুদিনের প্রত্যাশা পূরণ করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ-তে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত দুই দেশের বন্ধণকে আরো বেশী সুদৃঢ় করবে বলে জানান ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. কামরুল ইসলাম। বেসরকারী খাতের অন্যতম এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা কোভিড-১৯ এ নির্দেশিত সকল ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শনিবার ব্যতিত সপ্তাহের প্রতিদিন ঢাকা থেকে রাত ৯টায় ছেড়ে সরাসরি শারজাহ-তে স্থানীয় সময় রাত ১২টা ৩০মিনিটে পৌঁছাবে। অপরদিকে শারজাহ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে মঙ্গল, বুধ ও শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ১টা ৩০ মিনিটে ছেড়ে আসবে এবং ঢাকায় সকাল ৮টায় অবতরণ করবে।। এছাড়া সোম, বৃহস্পতি ও শনিবার রাত ১টা ৩০ মিনিটে শারজাহ থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং সকাল ৮টায় চট্টগ্রামে অবতরণ করবে। ইউএস-বাংলা ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে। বর্তমানে ইউএস-বাংলার বিমান বহরে ৬টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৭টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ সহ মোট ১৬টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স নতুন নতুন গন্তব্য বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সেবা দেয়ার লক্ষ্যে বিভিন্ন গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা গ্রহণ করে। তারই ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহরে ২০২১ সালে ১ ফেব্রুয়ারী থেকে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে। শারজাহ-তে কয়েক লক্ষ প্রবাসী বাংলাদেশী রয়েছে, ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ মনে করছে দুবাই এর মতো শারজাহ রুটও যাত্রীদের কাছে অনেক আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। বর্তমানে মধ্যপ্রচ্যের অন্যতম গন্তব্য দুবাই, মাস্কাট ও দোহা ছাড়াও প্রবাসী বাংলাদেশী অধ্যুষিত কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, মালে প্রতিবেশী দেশ ভারতের চেন্নাই, কলকাতা এবং চীনের অন্যতম গন্তব্য গুয়াংজুতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। করোনা মহামারির কারনে ব্যাংকক রুটে ফ্লাইটফ পরিচালনা সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে। ভবিষ্যত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে খুব শীঘ্রই কলম্বো, দিল্লী, জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, দাম্মাম রুটে ফ্লাইট শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের। আন্তর্জাতিক রুট ছাড়াও অভ্যন্তরীণ সকল রুট বিশেষ করে ঢাকা থেকে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, সিলেট, সৈয়দপুর, যশোর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা। এছাড়া যশোর থেকে কক্সবাজার এবং সৈয়দপুর থেকে চট্টগ্রাম রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

৩০ জানুয়ারী থেকে শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু ইউএস-বাংলার

আপডেট সময় : ০৯:২৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২
নিজস্ব প্রতিবেদক >
মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। আগামী ৩০ জানুয়ারী পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে একাদশ আন্তর্জাতিক রুট হিসেবে প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে ছয়দিন ঢাকা-শারজাহ-ঢাকা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা। শারজাহ-তে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের বহুদিনের প্রত্যাশা পূরণ করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ-তে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত দুই দেশের বন্ধণকে আরো বেশী সুদৃঢ় করবে বলে জানান ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. কামরুল ইসলাম। বেসরকারী খাতের অন্যতম এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা কোভিড-১৯ এ নির্দেশিত সকল ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শনিবার ব্যতিত সপ্তাহের প্রতিদিন ঢাকা থেকে রাত ৯টায় ছেড়ে সরাসরি শারজাহ-তে স্থানীয় সময় রাত ১২টা ৩০মিনিটে পৌঁছাবে। অপরদিকে শারজাহ থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে মঙ্গল, বুধ ও শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ১টা ৩০ মিনিটে ছেড়ে আসবে এবং ঢাকায় সকাল ৮টায় অবতরণ করবে।। এছাড়া সোম, বৃহস্পতি ও শনিবার রাত ১টা ৩০ মিনিটে শারজাহ থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং সকাল ৮টায় চট্টগ্রামে অবতরণ করবে। ইউএস-বাংলা ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে শারজাহ রুটে ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে। বর্তমানে ইউএস-বাংলার বিমান বহরে ৬টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও ৭টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ সহ মোট ১৬টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স নতুন নতুন গন্তব্য বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সেবা দেয়ার লক্ষ্যে বিভিন্ন গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা গ্রহণ করে। তারই ধারাবাহিকতায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহরে ২০২১ সালে ১ ফেব্রুয়ারী থেকে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে। শারজাহ-তে কয়েক লক্ষ প্রবাসী বাংলাদেশী রয়েছে, ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ মনে করছে দুবাই এর মতো শারজাহ রুটও যাত্রীদের কাছে অনেক আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। বর্তমানে মধ্যপ্রচ্যের অন্যতম গন্তব্য দুবাই, মাস্কাট ও দোহা ছাড়াও প্রবাসী বাংলাদেশী অধ্যুষিত কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, মালে প্রতিবেশী দেশ ভারতের চেন্নাই, কলকাতা এবং চীনের অন্যতম গন্তব্য গুয়াংজুতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। করোনা মহামারির কারনে ব্যাংকক রুটে ফ্লাইটফ পরিচালনা সাময়িকভাবে বন্ধ রয়েছে। ভবিষ্যত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে খুব শীঘ্রই কলম্বো, দিল্লী, জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, দাম্মাম রুটে ফ্লাইট শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের। আন্তর্জাতিক রুট ছাড়াও অভ্যন্তরীণ সকল রুট বিশেষ করে ঢাকা থেকে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, সিলেট, সৈয়দপুর, যশোর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা। এছাড়া যশোর থেকে কক্সবাজার এবং সৈয়দপুর থেকে চট্টগ্রাম রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা।