ঢাকা ০৭:১৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিশরে অবৈধদের বৈধ হতে ৩ মাসের আলটিমেটাম

  • আপডেট সময় : ০৪:৪৮:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / 198

A cityscape of the downtown area of Cairo, capital city of Egypt.

প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

প্রবাসী কণ্ঠ প্রতিনিধি, মিশর থেকে 

মিশরে বসবাসকারী অবৈধ বাংলাদেশীসহ বিদেশী নাগরিকদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছে দেশটির সরকার। ৩ মাসের মধ্যে নিদ্দিষ্ট ফি দিয়ে এই সুযোগ গ্রহণ করার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। যারা এই সুযোগ নিতে ব্যর্থ হবেন তাদেরকে জেল জরিমানা পরিশোধের পর নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে আলটিমেটাম দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে, মিশর সরকার ভিসা নিয়মিত করনীয় সর্ম্পকে অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশসহ যে কোন দেশের নাগরিকদের উদ্দেশ্য সম্প্রতি এক ঘোষনায় জানিয়েছে, যে বা যারা অবৈধভাবে মিশরের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাস করছেন, তাদেরকে ৯০ দিনের মধ্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে নির্ধারিত ফি জমা (ভিসা ফি, জরিমানা, আবেদন ফি) দিয়ে বৈধভাবে বসবাস করার জন্য। সরকারের এই বিশেষ অনুরোধে যারা সাড়া দিবেন না তাদেরকে সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী নিদ্দিষ্ট সময়ের পর আইন শৃংখলাবাহিনীর অভিযানে আটক করা হবে। এরপর জরিমানার অর্থ আদায় করে নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে।
ইতিমধ্যে এমন বার্তাটি মিশরে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকদের সচেতন করার উদ্দেশ্য ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবং সবাইকে সুযোগটি গ্রহন করার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।
মিশরে থাকা বাংলাদেশ কমিউনিটির পরিচিত ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন, আকরাম, জনিসহ একাধিক বাংলাদেশী গতকাল বিকেলে এই প্রসঙ্গে বলছিলেন, বর্তমানে মিশরে বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের ২০ লাখের মতো বিদেশী অবৈধভাবে অবস্থান করছেন বলে এই দেশের সরকার থেকে ধারণা করা হচ্ছে। এরমধ্যে বাংলাদেশীর সংখ্যা কি পরিমান হতে পারে তা অবশ্য এখানকার বাংলাদেশ দূতাবাসসহ সংশ্লিষ্ট কেউ কোন ধারনা দিতে পারছেন না। তবে শোনা যাচ্ছে, প্রােই দুবাই হয়ে মিশরে গিয়ে অনেক বাংলাদেশী থেকে যাচ্ছেন। সেখান থেকে আবার ইউরোপে যেতে লিবিয়া পাড়ি জমাচ্ছে অনেকে। আবার অনেকে ব্যবসাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে সুযোগ পাওয়ার জন্য মিশরে থেকে যাচ্ছেন। যদিও এখনো দেশটিতে বাংলাদেশের শ্রমবাজার সেভাবে খুলেনি। দূতাবাসের পক্ষ থেকে তেমন ভূমিকাও  দেখছেন না বলে অভিযোগ করেন তারা।
গতকাল মিশর থেকে জনৈক ব্যবসায়ী নাম না প্রকাশের শর্তে বলেন, মিশরে এই মুহুর্তে অবৈধভাবে অনেকে বাংলাদেশীসহ বিদেশী অবস্থান করছে। এমন ধারনায় চলতি মাসের ৩ তারিখে মিশর সরকার অবৈধভাবে অব্স্থানকারী বিদেশী নাগরিকদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছে। ৩ মাসের মধ্যে যারা সুযোগ নিতে ব্যর্থ হবেন তাদের বিরুদ্ধে এখানকার প্রশাসন অভিযান শুরু করবে। তখন অনেকের অনেক রকমের সমস্যা হবে। তাই যারা অবৈধ আছেন তাদের দ্রুত সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী ফি জমা দিয়ে সুযোগটি গ্রহণ করা উচিত বলে আমি মনে করি। এব্যাপারে দূতাবাসের পক্ষ থেকেও অবেধদের আরো সচেতন করানোর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা উচিত বলে মনে করছেন মিশরে বসবাসকারী বাংলাদেশীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

মিশরে অবৈধদের বৈধ হতে ৩ মাসের আলটিমেটাম

আপডেট সময় : ০৪:৪৮:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

প্রবাসী কণ্ঠ প্রতিনিধি, মিশর থেকে 

মিশরে বসবাসকারী অবৈধ বাংলাদেশীসহ বিদেশী নাগরিকদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছে দেশটির সরকার। ৩ মাসের মধ্যে নিদ্দিষ্ট ফি দিয়ে এই সুযোগ গ্রহণ করার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। যারা এই সুযোগ নিতে ব্যর্থ হবেন তাদেরকে জেল জরিমানা পরিশোধের পর নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে আলটিমেটাম দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে, মিশর সরকার ভিসা নিয়মিত করনীয় সর্ম্পকে অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশসহ যে কোন দেশের নাগরিকদের উদ্দেশ্য সম্প্রতি এক ঘোষনায় জানিয়েছে, যে বা যারা অবৈধভাবে মিশরের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাস করছেন, তাদেরকে ৯০ দিনের মধ্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের মাধ্যমে নির্ধারিত ফি জমা (ভিসা ফি, জরিমানা, আবেদন ফি) দিয়ে বৈধভাবে বসবাস করার জন্য। সরকারের এই বিশেষ অনুরোধে যারা সাড়া দিবেন না তাদেরকে সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী নিদ্দিষ্ট সময়ের পর আইন শৃংখলাবাহিনীর অভিযানে আটক করা হবে। এরপর জরিমানার অর্থ আদায় করে নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে।
ইতিমধ্যে এমন বার্তাটি মিশরে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকদের সচেতন করার উদ্দেশ্য ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবং সবাইকে সুযোগটি গ্রহন করার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে।
মিশরে থাকা বাংলাদেশ কমিউনিটির পরিচিত ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন, আকরাম, জনিসহ একাধিক বাংলাদেশী গতকাল বিকেলে এই প্রসঙ্গে বলছিলেন, বর্তমানে মিশরে বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের ২০ লাখের মতো বিদেশী অবৈধভাবে অবস্থান করছেন বলে এই দেশের সরকার থেকে ধারণা করা হচ্ছে। এরমধ্যে বাংলাদেশীর সংখ্যা কি পরিমান হতে পারে তা অবশ্য এখানকার বাংলাদেশ দূতাবাসসহ সংশ্লিষ্ট কেউ কোন ধারনা দিতে পারছেন না। তবে শোনা যাচ্ছে, প্রােই দুবাই হয়ে মিশরে গিয়ে অনেক বাংলাদেশী থেকে যাচ্ছেন। সেখান থেকে আবার ইউরোপে যেতে লিবিয়া পাড়ি জমাচ্ছে অনেকে। আবার অনেকে ব্যবসাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে সুযোগ পাওয়ার জন্য মিশরে থেকে যাচ্ছেন। যদিও এখনো দেশটিতে বাংলাদেশের শ্রমবাজার সেভাবে খুলেনি। দূতাবাসের পক্ষ থেকে তেমন ভূমিকাও  দেখছেন না বলে অভিযোগ করেন তারা।
গতকাল মিশর থেকে জনৈক ব্যবসায়ী নাম না প্রকাশের শর্তে বলেন, মিশরে এই মুহুর্তে অবৈধভাবে অনেকে বাংলাদেশীসহ বিদেশী অবস্থান করছে। এমন ধারনায় চলতি মাসের ৩ তারিখে মিশর সরকার অবৈধভাবে অব্স্থানকারী বিদেশী নাগরিকদের বৈধ হওয়ার সুযোগ দিয়েছে। ৩ মাসের মধ্যে যারা সুযোগ নিতে ব্যর্থ হবেন তাদের বিরুদ্ধে এখানকার প্রশাসন অভিযান শুরু করবে। তখন অনেকের অনেক রকমের সমস্যা হবে। তাই যারা অবৈধ আছেন তাদের দ্রুত সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী ফি জমা দিয়ে সুযোগটি গ্রহণ করা উচিত বলে আমি মনে করি। এব্যাপারে দূতাবাসের পক্ষ থেকেও অবেধদের আরো সচেতন করানোর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা উচিত বলে মনে করছেন মিশরে বসবাসকারী বাংলাদেশীরা।