ঢাকা ০৭:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবে সেনেগালে নিহত ১৫

  • আপডেট সময় : ১০:০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩
  • / 74
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সেনেগালের রাজধানী ডাকার উপকূলে অভিবাসী ও উদ্বাস্তুদের বহনকারী একটি নৌকা ডুবে যাওয়ার পর অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাকি স্যাল জানিয়েছেন, ইউরোপে পৌঁছানোর জন্য বিপজ্জনক সামুদ্রিক যাত্রার এটি সর্বশেষ ট্র্যাজেডি।

এক টুইটবার্তায় সেনেগালের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ‘ডাকার উপকূলে একটি পিরোগ (লম্বা কাঠের নৌকা) ডুবে যাওয়ার পরে প্রায় পনের জন সেনেগালের নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় আমি গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি। নিহতদের পরিবার এবং প্রিয়জনদের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা।’

সেনেগালের নৌবাহিনী সোমবার মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে। ডাকারের পার্শ্ববর্তী ওউকামের ডেপুটি মেয়র এনডেই টপ গুয়ে বলেন, যে ধরনের নৌকায় তারা উঠেছিলেন সেটি মূলত অভিবাসীরা ব্যবহার করে। আকার এবং আকৃতির কারণে, আমরা জানি যে এটি একটি পিরোগ।

তিনি বলেন, সেনেগালে সমুদ্রে অভিবাসীদের মৃত্যু সাধারণ ঘটনায় রূপ নিয়েচে। এটি প্রথমবার নয়, এটি অগণিত বার ঘটছে। সরকারকে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে হবে।

ওউকামের  জেলে বাবাকার ডায়ালো ভোরবেলা সমুদ্র সৈকতে নেমেছিলেন দিনের জন্য নৌকা প্রস্তুত করতে। তিনি জানান, তিনি দেখেছেন লোকেরা উদ্ধার প্রচেষ্টায় সাহায্য করার চেষ্টা করছে।

ডায়ালো বলেন, ‘তীরে কমপক্ষে ১২টি মৃতদেহ ছিল। দুই ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা সাগরের এই এলাকা চিনি। সম্ভবত আরও মৃতদেহ আছে।’

অগ্নিনির্বাপক ও ডুবুরিদের দল ওই এলাকায় মৃতদেহের সন্ধান করছে।

সেনেগাল থেকে স্পেনের ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জের আটলান্টিক অভিবাসন রুট দিয়ে অভিবাসী নৌকার সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এটি সবচেয়ে মারাত্মক রুটগুলোর মধ্যে একটি। অসংখ্য ভয়াবহ দুর্ঘটনার পরও মানুষ ইউরোপে প্রবেশ করতে এই রুট ব্যবহার করে।

মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকা (মেনা) অঞ্চল থেকে হাজার হাজার মানুষ ইউরোপে পৌঁছানোর জন্য বিপদজনক সমুদ্রপথ অবলম্বন করে। তারা প্রায়ই ডিঙ্গি নৌকায় চড়ে সাগর পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করে। ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) জানিয়েছে, গত বছর প্রায় চার হাজার মানুষের সাগরে মৃত্যু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবে সেনেগালে নিহত ১৫

আপডেট সময় : ১০:০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩

সেনেগালের রাজধানী ডাকার উপকূলে অভিবাসী ও উদ্বাস্তুদের বহনকারী একটি নৌকা ডুবে যাওয়ার পর অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট ম্যাকি স্যাল জানিয়েছেন, ইউরোপে পৌঁছানোর জন্য বিপজ্জনক সামুদ্রিক যাত্রার এটি সর্বশেষ ট্র্যাজেডি।

এক টুইটবার্তায় সেনেগালের প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ‘ডাকার উপকূলে একটি পিরোগ (লম্বা কাঠের নৌকা) ডুবে যাওয়ার পরে প্রায় পনের জন সেনেগালের নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনায় আমি গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি। নিহতদের পরিবার এবং প্রিয়জনদের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা।’

সেনেগালের নৌবাহিনী সোমবার মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে। ডাকারের পার্শ্ববর্তী ওউকামের ডেপুটি মেয়র এনডেই টপ গুয়ে বলেন, যে ধরনের নৌকায় তারা উঠেছিলেন সেটি মূলত অভিবাসীরা ব্যবহার করে। আকার এবং আকৃতির কারণে, আমরা জানি যে এটি একটি পিরোগ।

তিনি বলেন, সেনেগালে সমুদ্রে অভিবাসীদের মৃত্যু সাধারণ ঘটনায় রূপ নিয়েচে। এটি প্রথমবার নয়, এটি অগণিত বার ঘটছে। সরকারকে পাল্টা ব্যবস্থা নিতে হবে।

ওউকামের  জেলে বাবাকার ডায়ালো ভোরবেলা সমুদ্র সৈকতে নেমেছিলেন দিনের জন্য নৌকা প্রস্তুত করতে। তিনি জানান, তিনি দেখেছেন লোকেরা উদ্ধার প্রচেষ্টায় সাহায্য করার চেষ্টা করছে।

ডায়ালো বলেন, ‘তীরে কমপক্ষে ১২টি মৃতদেহ ছিল। দুই ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। আমরা সাগরের এই এলাকা চিনি। সম্ভবত আরও মৃতদেহ আছে।’

অগ্নিনির্বাপক ও ডুবুরিদের দল ওই এলাকায় মৃতদেহের সন্ধান করছে।

সেনেগাল থেকে স্পেনের ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জের আটলান্টিক অভিবাসন রুট দিয়ে অভিবাসী নৌকার সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এটি সবচেয়ে মারাত্মক রুটগুলোর মধ্যে একটি। অসংখ্য ভয়াবহ দুর্ঘটনার পরও মানুষ ইউরোপে প্রবেশ করতে এই রুট ব্যবহার করে।

মধ্যপ্রাচ্য এবং উত্তর আফ্রিকা (মেনা) অঞ্চল থেকে হাজার হাজার মানুষ ইউরোপে পৌঁছানোর জন্য বিপদজনক সমুদ্রপথ অবলম্বন করে। তারা প্রায়ই ডিঙ্গি নৌকায় চড়ে সাগর পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করে। ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন (আইওএম) জানিয়েছে, গত বছর প্রায় চার হাজার মানুষের সাগরে মৃত্যু হয়েছে।