ঢাকা ০২:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কারাভোগ শেষে ভারত থেকে দেশে ফিরলেন ১১ জেলে

  • আপডেট সময় : ০৪:১৮:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / 107
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বরগুনা গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার সময় ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হওয়ায় ভাসতে ভাসতে ভারতের জলসীমায় প্রবেশ করার অপরাধে ছয় মাস কারাভোগ করার পর দেশে ফিরে এসেছেন এফবি ফাতেমা নামে একটি ট্রলারের ১১ জেলে। মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৬টায় সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফেরেন তারা।

ফিরে আসা জেলেরা হলেন- মো. আলী হোসেন, মো. সামছুল হক, আব্দুল জলিল মিয়া, মো. নবী হোসেন লিচ, মো. খলিল মীর, ফারুক মীর, মো. মুছা, মো. রুবেল, মো. রুস্তম, মো.হারুন ও হাফিজুর রহমান। তাদের বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটায়।এর আগে গত ১৫ আগস্ট ভারতের চব্বিশ পরগনা এলাকার ছোট মোল্লাখালী কোস্টাল এলাকা থেকে ট্রলারসহ আটক ১১ জেলেকে ভারতের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন স্থানীয় জেলেরা। পরে ১৬ আগস্ট দুপুরে তাদের আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জেলেদের ফিরে আসা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভারতে থাকা জেলেদের ফিরিয়ে আনার জন্য একাধিকবার ভারতে গিয়েছি। বেশ কয়েকবার নিরাশ হয়ে ফিরে এসেছি। বাংলাদেশি জলসীমা অতিক্রম করায় ওই দেশের আদালত ১১ জেলেকে ছয় দিন করে কারাদণ্ডাদেশ দেন। কিন্তু ছয় দিনের কারাদণ্ডাদেশে থাকতে হলো ছয় মাস। অবশেষে তারা দেশের মাটিতে পা রেখেছেন।

বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান জানান, দেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতে চলে যাওয়া জেলেদের ফিরে আনার ব্যাপারে আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চিঠি লিখেছি। দীর্ঘ আইনি জটিলতা শেষে ভারতে আটকে থাকা ১১ জেলে মঙ্গলবার সকালে দেশে ফিরেছেন বলে জানতে পেরেছি।

উল্লেখ্য, গত ১১ আগস্ট এফবি ফাতেমা ট্রলারটি নিয়ে ১১ জেলে সাগরে মাছ ধরতে যান। তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন চরদুয়ানী ইউনিয়নের সামছুল হক। এর দুইদিন পর গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার সময় ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এরপর তারা ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশি জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় অনুপ্রবেশ করেন। পরে স্থানীয় জেলেরা তাদের আটক করে পুলিশে দিলে তাদের কারাদণ্ড হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

কারাভোগ শেষে ভারত থেকে দেশে ফিরলেন ১১ জেলে

আপডেট সময় : ০৪:১৮:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বরগুনা গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার সময় ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হওয়ায় ভাসতে ভাসতে ভারতের জলসীমায় প্রবেশ করার অপরাধে ছয় মাস কারাভোগ করার পর দেশে ফিরে এসেছেন এফবি ফাতেমা নামে একটি ট্রলারের ১১ জেলে। মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৬টায় সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে দেশে ফেরেন তারা।

ফিরে আসা জেলেরা হলেন- মো. আলী হোসেন, মো. সামছুল হক, আব্দুল জলিল মিয়া, মো. নবী হোসেন লিচ, মো. খলিল মীর, ফারুক মীর, মো. মুছা, মো. রুবেল, মো. রুস্তম, মো.হারুন ও হাফিজুর রহমান। তাদের বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটায়।এর আগে গত ১৫ আগস্ট ভারতের চব্বিশ পরগনা এলাকার ছোট মোল্লাখালী কোস্টাল এলাকা থেকে ট্রলারসহ আটক ১১ জেলেকে ভারতের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন স্থানীয় জেলেরা। পরে ১৬ আগস্ট দুপুরে তাদের আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জেলেদের ফিরে আসা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভারতে থাকা জেলেদের ফিরিয়ে আনার জন্য একাধিকবার ভারতে গিয়েছি। বেশ কয়েকবার নিরাশ হয়ে ফিরে এসেছি। বাংলাদেশি জলসীমা অতিক্রম করায় ওই দেশের আদালত ১১ জেলেকে ছয় দিন করে কারাদণ্ডাদেশ দেন। কিন্তু ছয় দিনের কারাদণ্ডাদেশে থাকতে হলো ছয় মাস। অবশেষে তারা দেশের মাটিতে পা রেখেছেন।

বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান জানান, দেশের জলসীমা অতিক্রম করে ভারতে চলে যাওয়া জেলেদের ফিরে আনার ব্যাপারে আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চিঠি লিখেছি। দীর্ঘ আইনি জটিলতা শেষে ভারতে আটকে থাকা ১১ জেলে মঙ্গলবার সকালে দেশে ফিরেছেন বলে জানতে পেরেছি।

উল্লেখ্য, গত ১১ আগস্ট এফবি ফাতেমা ট্রলারটি নিয়ে ১১ জেলে সাগরে মাছ ধরতে যান। তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন চরদুয়ানী ইউনিয়নের সামছুল হক। এর দুইদিন পর গভীর সমুদ্রে মাছ ধরার সময় ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এরপর তারা ভাসতে ভাসতে বাংলাদেশি জলসীমা অতিক্রম করে ভারতীয় জলসীমায় অনুপ্রবেশ করেন। পরে স্থানীয় জেলেরা তাদের আটক করে পুলিশে দিলে তাদের কারাদণ্ড হয়।