ঢাকা ০২:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝড়-ঠান্ডায় বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র

  • আপডেট সময় : ০৪:৩১:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২২
  • / 73
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড় ও অত্যাধিক ঠান্ডায় অন্তত ৩৪ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। ঝড়ের কারণে গত কয়েকদিন ধরে স্থবির হয়ে আছে দেশটির জনজীবন।

ঝড়ে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নিউ ইয়র্কের বাফেলো শহর। শুধুমাত্র এখানেই মারা গেছেন ৭ জন। ঝড়ের প্রভাবে বাফেলোর অনেক স্থান বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল। তবে বার্তা সংস্থা এপি রোববার (২৫ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ধীরে ধীরে ফিরতে শুরু করেছে বিদ্যুৎ সংযোগ।

ঝড়ের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে, এর প্রভাব পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ দিকের রাজ্য টেক্সাস থেকে পার্শ্ববর্তী দেশ কানাডাতেও।

নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল বলেছেন, ‘এবারের ঝড় বাফেলোর ইতিহাসে সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক হিসেবে ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে।’

বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ঠাণ্ডা পড়েছে পশ্চিম দিকের রাজ্য মন্টানাতে। এ রাজ্যে তাপমাত্রা -৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও নিচে নেমে গেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

অন্যদিকে কানাডার কিউবেক এবং ওন্টারিওর মানুষের জনজীবনের ওপরও প্রভাব ফেলেছে এ ঝড়। রোববার কিউবেকের ১২ হাজার গ্রাহকের ঘরে ছিল না বিদ্যুৎ। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হতে কয়েকদিন সময় লাগতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

ঝড়-ঠান্ডায় বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট সময় : ০৪:৩১:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড় ও অত্যাধিক ঠান্ডায় অন্তত ৩৪ জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। ঝড়ের কারণে গত কয়েকদিন ধরে স্থবির হয়ে আছে দেশটির জনজীবন।

ঝড়ে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে নিউ ইয়র্কের বাফেলো শহর। শুধুমাত্র এখানেই মারা গেছেন ৭ জন। ঝড়ের প্রভাবে বাফেলোর অনেক স্থান বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছিল। তবে বার্তা সংস্থা এপি রোববার (২৫ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ধীরে ধীরে ফিরতে শুরু করেছে বিদ্যুৎ সংযোগ।

ঝড়ের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে, এর প্রভাব পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ দিকের রাজ্য টেক্সাস থেকে পার্শ্ববর্তী দেশ কানাডাতেও।

নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল বলেছেন, ‘এবারের ঝড় বাফেলোর ইতিহাসে সবচেয়ে ধ্বংসাত্মক হিসেবে ইতিহাসের পাতায় লেখা থাকবে।’

বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ঠাণ্ডা পড়েছে পশ্চিম দিকের রাজ্য মন্টানাতে। এ রাজ্যে তাপমাত্রা -৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরও নিচে নেমে গেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

অন্যদিকে কানাডার কিউবেক এবং ওন্টারিওর মানুষের জনজীবনের ওপরও প্রভাব ফেলেছে এ ঝড়। রোববার কিউবেকের ১২ হাজার গ্রাহকের ঘরে ছিল না বিদ্যুৎ। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হতে কয়েকদিন সময় লাগতে পারে।