কর্মী সংকটে যুক্তরাজ্যে ফ্লাইট বাতিলের হিড়িক

  • আপডেট সময় : ০৯:১৬:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ এপ্রিল ২০২২
  • / 128
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কর্মী সংকটে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে বুধবারও (৬ এপ্রিল) চারটি ফ্লাইট বাতিল করেছে। এর আগে কোম্পানিটি ৭৪টি ফ্লাইট বাতিল করে। করোনা সম্পর্কিত কারণে কর্মী সংকট দেখা দেওয়ায় কোম্পানিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে ব্রিটিশ এ কোম্পানিটি তাদের ফ্লাইট বাতিলের সম্ভাবনার কথা জানায়। মে পর্যন্ত শিডিউল কমানোর পরই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে সম্প্রতি বেশ কিছু কর্মী করোনার কারণে অনুপস্থিত থাকায় আরও ফ্লাইট বাতিলের সিদ্ধান্ত আসে।

তাছাড়া ইজিজেটও এদিন গ্যাটউইক বিমানবন্দরের ৩০টি ফ্লাইট বাতিল করে। ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ মঙ্গলবার একদম শেষদিকে ছয়টি ফ্লাইট বাতিল করে। তাছাড়া সোমবার এটি পূর্ব নির্ধারিত ৬২টি ফ্লাইট বাতিল করে। এসময় ১২টি ফ্লাইট বাতিল করা হয় একদম শেষের দিকে।

জানা গেছে, করোনা সম্পর্কিত কারণে দেশটির বিমানবন্দর ও এয়ারলাইনসগুলোতে কর্মী ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এদিকে বিভিন্ন কারণে কোম্পানিগুলো কর্মী নিয়োগে হিমশিম খাচ্ছে। অন্যদিকে মহামারির সময় বহুকর্মী চাকরি ছেড়ে দিয়েছে।

ইজিজেট জানিয়েছে, করোনার কারণে কর্মী সংখ্যা স্বাভাবিকের চেয়ে দ্বিগুণ কমেছে। এতে আমস্টারডাম, ক্রাকো, বোলোগনা ও বার্লিন রুটে বেশি প্রভাব পড়েছে বলেও জানানো হয়।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

কর্মী সংকটে যুক্তরাজ্যে ফ্লাইট বাতিলের হিড়িক

আপডেট সময় : ০৯:১৬:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ এপ্রিল ২০২২

কর্মী সংকটে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে বুধবারও (৬ এপ্রিল) চারটি ফ্লাইট বাতিল করেছে। এর আগে কোম্পানিটি ৭৪টি ফ্লাইট বাতিল করে। করোনা সম্পর্কিত কারণে কর্মী সংকট দেখা দেওয়ায় কোম্পানিটি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে ব্রিটিশ এ কোম্পানিটি তাদের ফ্লাইট বাতিলের সম্ভাবনার কথা জানায়। মে পর্যন্ত শিডিউল কমানোর পরই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে সম্প্রতি বেশ কিছু কর্মী করোনার কারণে অনুপস্থিত থাকায় আরও ফ্লাইট বাতিলের সিদ্ধান্ত আসে।

তাছাড়া ইজিজেটও এদিন গ্যাটউইক বিমানবন্দরের ৩০টি ফ্লাইট বাতিল করে। ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ মঙ্গলবার একদম শেষদিকে ছয়টি ফ্লাইট বাতিল করে। তাছাড়া সোমবার এটি পূর্ব নির্ধারিত ৬২টি ফ্লাইট বাতিল করে। এসময় ১২টি ফ্লাইট বাতিল করা হয় একদম শেষের দিকে।

জানা গেছে, করোনা সম্পর্কিত কারণে দেশটির বিমানবন্দর ও এয়ারলাইনসগুলোতে কর্মী ঘাটতি দেখা দিয়েছে। এদিকে বিভিন্ন কারণে কোম্পানিগুলো কর্মী নিয়োগে হিমশিম খাচ্ছে। অন্যদিকে মহামারির সময় বহুকর্মী চাকরি ছেড়ে দিয়েছে।

ইজিজেট জানিয়েছে, করোনার কারণে কর্মী সংখ্যা স্বাভাবিকের চেয়ে দ্বিগুণ কমেছে। এতে আমস্টারডাম, ক্রাকো, বোলোগনা ও বার্লিন রুটে বেশি প্রভাব পড়েছে বলেও জানানো হয়।