ঢাকা ০৬:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দুবাইয়ে স্ট্রোক করে চাঁদপুর প্রবাসীর মৃত্যু

  • আপডেট সময় : ০৭:৪১:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ অগাস্ট ২০২৩
  • / 81
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে স্ট্রোক করে মুহাম্মদ মোহসিন (৪১) নামে এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় গত বুধবার (১৬ আগস্ট) দিনে তার মৃত্যু হয়।

মৃতের বাড়ি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার মৈশাইদ রামপুর-নওহাটা গ্রামে। তিনি সে গ্রামের মৃত মুজিবুর রহমানের ছেলে।

এ বিষয়ে প্রবাসী মোহাম্মদ হোসেন জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে দুবাই ইন্টারন্যাশনাল সিটিতে নিজ বাসার বাইরে এলে রাস্তায় অচেতন হয়ে পড়ে যান প্রবাসী মোহসিন। এরপর নাখিল সিকিউরিটি পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তারা সেখান থেকে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা যায়, প্রায় সময় হাই প্রেসারের ঔষধ খেতেন মৃত প্রবাসী মোহসিন।

এদিকে মোহসিনের মৃত্যুতে প্রবাসী বাংলাদেশি ও তার গ্রামজুড়ে শোকের ছায়া নেমেছে। ২০০৬ সালের শেষের দিকে আবুধাবিতে কন্সট্রাকশন কোম্পানিতে কাজ করতে আসেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

দুবাইয়ে স্ট্রোক করে চাঁদপুর প্রবাসীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৭:৪১:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৮ অগাস্ট ২০২৩

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে স্ট্রোক করে মুহাম্মদ মোহসিন (৪১) নামে এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় গত বুধবার (১৬ আগস্ট) দিনে তার মৃত্যু হয়।

মৃতের বাড়ি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার মৈশাইদ রামপুর-নওহাটা গ্রামে। তিনি সে গ্রামের মৃত মুজিবুর রহমানের ছেলে।

এ বিষয়ে প্রবাসী মোহাম্মদ হোসেন জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে দুবাই ইন্টারন্যাশনাল সিটিতে নিজ বাসার বাইরে এলে রাস্তায় অচেতন হয়ে পড়ে যান প্রবাসী মোহসিন। এরপর নাখিল সিকিউরিটি পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তারা সেখান থেকে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা যায়, প্রায় সময় হাই প্রেসারের ঔষধ খেতেন মৃত প্রবাসী মোহসিন।

এদিকে মোহসিনের মৃত্যুতে প্রবাসী বাংলাদেশি ও তার গ্রামজুড়ে শোকের ছায়া নেমেছে। ২০০৬ সালের শেষের দিকে আবুধাবিতে কন্সট্রাকশন কোম্পানিতে কাজ করতে আসেন তিনি।