রোহিঙ্গাদের ৩ মিলিয়ন ডলার দেবে দক্ষিণ কোরিয়া

  • আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০২৩
  • / 58
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক সহায়তা হিসেবে ৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে দক্ষিণ কোরিয়া। বুধবার (২৬ জুলাই) ঢাকাস্থ দক্ষিণ কোরিয়া দূতাবাস রোহিঙ্গাদের জন্য এ সহায়তার ঘোষণা দেয়।

কোরিয়ান দূতাবাস জানায়, রোহিঙ্গাদের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার এ মানবিক সহায়তা বাংলাদেশে থাকা জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক সংস্থা-ইউএনএইচসিআর, আইওএম, উব্লিউএফপি ও ইউনিসেফের মাধ্যমে দেওয়া হবে।

দূতাবাস বলছে, দক্ষিণ কোরিয়া ২০১৭ সালের পর থেকে রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশ সরকার এবং আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতায় আশ্রিত রোহিঙ্গা এবং স্থানীয়দের জন্য বছরে গড়ে ৩ থেকে ৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়া অব্যাহত রেখেছে। জয়েন্ট রেসপন্স প্ল্যানের (জেআরপি) সমর্থনে এলপিজি, শিক্ষা ও খাবারের ব্যবস্থাসহ গত ছয় বছর ধরে কোরিয়ার অর্থায়ন বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ডে ব্যবহৃত হচ্ছে।

কোরিয়া বলছে, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সরকারের মধ্যে সংলাপকে সমর্থন করে দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিরাপদ, স্বেচ্ছায়, মর্যাদাপূর্ণ এবং টেকসই প্রত্যাবর্তন সমর্থন করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

রোহিঙ্গাদের ৩ মিলিয়ন ডলার দেবে দক্ষিণ কোরিয়া

আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০২৩

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক সহায়তা হিসেবে ৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেবে দক্ষিণ কোরিয়া। বুধবার (২৬ জুলাই) ঢাকাস্থ দক্ষিণ কোরিয়া দূতাবাস রোহিঙ্গাদের জন্য এ সহায়তার ঘোষণা দেয়।

কোরিয়ান দূতাবাস জানায়, রোহিঙ্গাদের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার এ মানবিক সহায়তা বাংলাদেশে থাকা জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক সংস্থা-ইউএনএইচসিআর, আইওএম, উব্লিউএফপি ও ইউনিসেফের মাধ্যমে দেওয়া হবে।

দূতাবাস বলছে, দক্ষিণ কোরিয়া ২০১৭ সালের পর থেকে রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশ সরকার এবং আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতায় আশ্রিত রোহিঙ্গা এবং স্থানীয়দের জন্য বছরে গড়ে ৩ থেকে ৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দেওয়া অব্যাহত রেখেছে। জয়েন্ট রেসপন্স প্ল্যানের (জেআরপি) সমর্থনে এলপিজি, শিক্ষা ও খাবারের ব্যবস্থাসহ গত ছয় বছর ধরে কোরিয়ার অর্থায়ন বিভিন্ন মানবিক কর্মকাণ্ডে ব্যবহৃত হচ্ছে।

কোরিয়া বলছে, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সরকারের মধ্যে সংলাপকে সমর্থন করে দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিরাপদ, স্বেচ্ছায়, মর্যাদাপূর্ণ এবং টেকসই প্রত্যাবর্তন সমর্থন করে।