ঢাকা ০৮:৩২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের কর্মীরা খুব ভালো কাজ করছেন : ইতালির প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট সময় : ১০:৫৪:১৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০২৩
  • / 59
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ইতালিতে বাংলাদেশের কর্মীরা খুব ভালো কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি। পাশাপাশি তিনি বৈধ উপায়ে বাংলাদেশি শ্রমিকদের অভিবাসনের প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন।

গত মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তিনি এ বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইতালির প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‌‘বাংলাদেশের কর্মীরা এখানে খুব ভালো কাজ করছেন। তাদের যথেষ্ট বিশ্বাসযোগ্যতা আছে। তবে আমি অবৈধ শ্রমিক চাই না।’

 

আব্দুল মোমেন বলেন, তারা চান না অবৈধ বাংলাদেশিরা ইতালিতে থাকুক। কেননা সেখানকার স্থানীয়রাও তা চান না। তারা বাংলাদেশের জন্য বৈধ উপায়ে জনশক্তি পাঠানোর দরজা খুলে দিয়েছে।

 

এসময় বাংলাদেশও অবৈধ অভিবাসনকে নিরুৎসাহিত করে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমি অবৈধ অভিবাসনের প্রতি শূন্য সহনশীলতা নীতিতে বিশ্বাসী। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অন্য দেশ থেকে অবৈধ পথে ইতালিতে আসা অভিবাসী বাংলাদেশিদের আটকাতে ইতালীয় কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে।

 

শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন দেওয়ার জন্য ইতালিকে ধন্যবাদ জানান। একইসঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জোড়ালো সমর্থন অব্যাহত রাখতে বলেন। এসময় বাংলাদেশের সরকারপ্রধান ইতালির প্রধানমন্ত্রীকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানালে তিনি তা গ্রহণ করেন।

 

এর আগে, শেখ হাসিনা ইতালির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পালাজ্জো চিগিতে পৌঁছালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি তাকে অভ্যর্থনা জানান। পরে সেখানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

বাংলাদেশের কর্মীরা খুব ভালো কাজ করছেন : ইতালির প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ১০:৫৪:১৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুলাই ২০২৩

ইতালিতে বাংলাদেশের কর্মীরা খুব ভালো কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি। পাশাপাশি তিনি বৈধ উপায়ে বাংলাদেশি শ্রমিকদের অভিবাসনের প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন।

গত মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তিনি এ বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইতালির প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, ‌‘বাংলাদেশের কর্মীরা এখানে খুব ভালো কাজ করছেন। তাদের যথেষ্ট বিশ্বাসযোগ্যতা আছে। তবে আমি অবৈধ শ্রমিক চাই না।’

 

আব্দুল মোমেন বলেন, তারা চান না অবৈধ বাংলাদেশিরা ইতালিতে থাকুক। কেননা সেখানকার স্থানীয়রাও তা চান না। তারা বাংলাদেশের জন্য বৈধ উপায়ে জনশক্তি পাঠানোর দরজা খুলে দিয়েছে।

 

এসময় বাংলাদেশও অবৈধ অভিবাসনকে নিরুৎসাহিত করে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমি অবৈধ অভিবাসনের প্রতি শূন্য সহনশীলতা নীতিতে বিশ্বাসী। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে অন্য দেশ থেকে অবৈধ পথে ইতালিতে আসা অভিবাসী বাংলাদেশিদের আটকাতে ইতালীয় কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে।

 

শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে সমর্থন দেওয়ার জন্য ইতালিকে ধন্যবাদ জানান। একইসঙ্গে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জোড়ালো সমর্থন অব্যাহত রাখতে বলেন। এসময় বাংলাদেশের সরকারপ্রধান ইতালির প্রধানমন্ত্রীকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানালে তিনি তা গ্রহণ করেন।

 

এর আগে, শেখ হাসিনা ইতালির প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পালাজ্জো চিগিতে পৌঁছালে দেশটির প্রধানমন্ত্রী জর্জিয়া মেলোনি তাকে অভ্যর্থনা জানান। পরে সেখানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।