ঢাকা ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আরও জনশক্তি নিতে আগ্রহী ইতালি

  • আপডেট সময় : ০১:৫০:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩
  • / 51
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 বাংলাদেশ থেকে আরও জনশক্তি নিতে আগ্রহী ইতালি। বিশেষ করে কৃষি ও সেবা খাতে। সোমবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় রোমে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) সদর দপ্তরে জাতিসংঘের খাদ্য ব্যবস্থা সম্মেলনের সাইডলাইনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে ইতালির তিন মন্ত্রী এ আগ্রহের কথা জানান।

ইতালির তিন মন্ত্রী হলেন দেশটির কৃষিমন্ত্রী ফ্রান্সেস্কো ললোব্রিগিদা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাতেও পিয়ান্তেডোসি এবং বিচারমন্ত্রী কার্লো নর্দিও।

পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, ইতালির মন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন তাদের দেশ বৈধ পথে বাংলাদেশ থেকে আরও শ্রমিক নিতে আগ্রহী, বিশেষ করে সেবা ও কৃষি খাতে।

ইতালির মন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে অবৈধ শ্রমিক নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তারা অবৈধ শ্রমিকদের নিরুৎসাহিত করার কথা বলেন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশও অবৈধ শ্রমিকদের নিরুৎসাহিত করতে চায়।

বৈধ এবং অবৈধ দুই ধরনের শ্রমিকরাই ইতালি ও বাংলাদেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী অবৈধ শ্রমিকদের মধ্যে যারা ভালো ও দক্ষ তাদের বৈধ করে নেওয়ার অনুরোধ করেন।

ব্রিফিংয়ে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান, প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

আরও জনশক্তি নিতে আগ্রহী ইতালি

আপডেট সময় : ০১:৫০:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই ২০২৩

 বাংলাদেশ থেকে আরও জনশক্তি নিতে আগ্রহী ইতালি। বিশেষ করে কৃষি ও সেবা খাতে। সোমবার (২৪ জুলাই) সন্ধ্যায় রোমে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) সদর দপ্তরে জাতিসংঘের খাদ্য ব্যবস্থা সম্মেলনের সাইডলাইনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎকালে ইতালির তিন মন্ত্রী এ আগ্রহের কথা জানান।

ইতালির তিন মন্ত্রী হলেন দেশটির কৃষিমন্ত্রী ফ্রান্সেস্কো ললোব্রিগিদা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাতেও পিয়ান্তেডোসি এবং বিচারমন্ত্রী কার্লো নর্দিও।

পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, ইতালির মন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রীকে বলেছেন তাদের দেশ বৈধ পথে বাংলাদেশ থেকে আরও শ্রমিক নিতে আগ্রহী, বিশেষ করে সেবা ও কৃষি খাতে।

ইতালির মন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে অবৈধ শ্রমিক নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তারা অবৈধ শ্রমিকদের নিরুৎসাহিত করার কথা বলেন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশও অবৈধ শ্রমিকদের নিরুৎসাহিত করতে চায়।

বৈধ এবং অবৈধ দুই ধরনের শ্রমিকরাই ইতালি ও বাংলাদেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী অবৈধ শ্রমিকদের মধ্যে যারা ভালো ও দক্ষ তাদের বৈধ করে নেওয়ার অনুরোধ করেন।

ব্রিফিংয়ে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইতালিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. শামীম আহসান, প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম।