স্বাস্থ্য সেবা নিয়েও কাজ করছে গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক

  • আপডেট সময় : ০১:০৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জুন ২০২২
  • / 511
প্রবাসী কণ্ঠ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রতিবছর মেডিকেল টু্যৃরিজম হিসেবে বাংলাদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ লোক ভারত ভ্রমনে যান। তারা একই সাথে চিকিৎসা ও পর্যটন সুবিধা গ্রহণ করেন। করোনা মহামারির মাঝেও চলতি বছর ৭ লাখ লোক ভারত ভ্রমন করেছেন। গতকাল শনিবার ভারতের শীর্ষ চিকিৎসা গ্রুপ নানাভাটি ম্যাক্স হাসপাতালের উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে এমনই তথ্য জানালেন নানাভাটি হাসপাতালের স্থানীয় অংশীদার গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক এর কর্ণধার ড. শংকর চন্দ্র পোদ্দার। অনলাইন ভিত্তিক এই প্রতিষ্টানটির সিইও ড. শংকর চন্দ্র পোদ্দার সংবাদ সম্মেলনে জানান- ভারতের মুম্বাইয়ের ডাঃ বালাভাই নানাবতী হাসপাতাল একটি আইকনিক স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান। এটি মহাত্মা গান্ধীর দ্বারা আশীর্বাদিত হয়েছিল এবং ১৯৫০ সালে ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী শ্রী জওহরলাল নেহরু উদ্বোধন করেন। এটি এখন অত্যাধুনিক অবকাঠামো, উন্নত প্রযুক্তি এবং ভারতের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্লিনিকাল বিশেষজ্ঞসহ নানাবতী ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল হিসাবে পুনরায় চালু করা হচ্ছে। বাংলাদেশের গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক হচ্ছে নানাভাটি হাসপাতালের স্থানীয় তথ্য সহায়তা কেন্দ্র। এই তথ্য কেন্দ্রটি গার্ডিয়ান হেলথকেয়ার, ঢাকা এবং ম্যাগনাস মেডি, মুম্বাই দ্বারা পরিচালিত। যা একটি পরামর্শকারী সংস্থা হিসেবেও পর্যটন, স্বাস্থ্য পর্যটন, ট্যুর এবং ভ্রমণ সম্পর্কে পরামর্শ দেয়া হয়। ড. শংকর বলেন, আমরা ১২ বছর থেকে কাজ করছি। গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা সেমিনার এবং প্রদর্শনী, কন্টিনিউয়িং মেডিকেল এডুকেশন (সিএমই), কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি (সিএসআর) এর মতো কাজ করছে। এই রোগী সহায়তা কেন্দ্রটি বাংলাদেশী রোগীদের এবং তাদের পরিবারের ক্লিনিকাল চাহিদা মেটাবে। এটি টেলিমেডিসিন সুবিধার মাধ্যমে নির্বিঘ্ন চিকিত্সা অনুমান, বাসস্থান এবং অ্যাপয়েন্টমেন্টের ব্যবস্থা, ভিসা আমন্ত্রণ এবং পোস্ট কেয়ার ফলোআপ সমর্থন নিশ্চিত করার জন্য ওয়ান স্টপ সমাধান হিসাবে কাজ করবে। এই হাসপাতালটি অনকোলজি, গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি নিউরোলজি, অর্থোপেডিকস এবং মেরুদন্ড সম্পর্কিত সমস্যাগুলির ক্ষেত্রে তাদের উন্নত চিকিত্সার জন্য পরিচিত। অনকোলজি ডাক্তারদের বেশিরভাগই প্রাক্তন অধ্যাপক বা মুম্বাইয়ের মর্যাদাপূর্ণ টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালের বিভাগের প্রাক্তন প্রধান। আমরা মালয়েশিয়া ভারত, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কা হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা সকল বাংলাদেশিদের মধ্যে প্রচার করছি। ম্যাগনাস মেডি ভারতের অন্যতম বিখ্যাত স্বাস্থ্যসেবা সংস্থা। ২০ টিরও বেশি দেশ থেকে রোগী এখানে সেবা নিয়েছে। শনিবার গুলশানের নিজস্ব অফিসে এই অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন- নানাবতী থেকে, ডাঃ গণেশ নাগরাজন ও ডাঃ মুজ্জাম্মিল শেখ। অনুষ্টানে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টিটু জানান- তিনি কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হবার মুম্বাই গিয়ে এই নানাভাটি হাসপাতালে সঠিক চিকিৎসা নিয়ে দ্রুততম সময়ে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েছেন। এত দ্রুত ক্যান্সার তিন স্তরের সুচিকিৎসা পেয়ে সুস্থ হবেন এটি তার কাছেও বিস্ময় লাগছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :

স্বাস্থ্য সেবা নিয়েও কাজ করছে গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক

আপডেট সময় : ০১:০৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ জুন ২০২২
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রতিবছর মেডিকেল টু্যৃরিজম হিসেবে বাংলাদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ লোক ভারত ভ্রমনে যান। তারা একই সাথে চিকিৎসা ও পর্যটন সুবিধা গ্রহণ করেন। করোনা মহামারির মাঝেও চলতি বছর ৭ লাখ লোক ভারত ভ্রমন করেছেন। গতকাল শনিবার ভারতের শীর্ষ চিকিৎসা গ্রুপ নানাভাটি ম্যাক্স হাসপাতালের উদ্যোগে আয়োজিত এক সংবাদ সন্মেলনে এমনই তথ্য জানালেন নানাভাটি হাসপাতালের স্থানীয় অংশীদার গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক এর কর্ণধার ড. শংকর চন্দ্র পোদ্দার। অনলাইন ভিত্তিক এই প্রতিষ্টানটির সিইও ড. শংকর চন্দ্র পোদ্দার সংবাদ সম্মেলনে জানান- ভারতের মুম্বাইয়ের ডাঃ বালাভাই নানাবতী হাসপাতাল একটি আইকনিক স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান। এটি মহাত্মা গান্ধীর দ্বারা আশীর্বাদিত হয়েছিল এবং ১৯৫০ সালে ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী শ্রী জওহরলাল নেহরু উদ্বোধন করেন। এটি এখন অত্যাধুনিক অবকাঠামো, উন্নত প্রযুক্তি এবং ভারতের সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্লিনিকাল বিশেষজ্ঞসহ নানাবতী ম্যাক্স সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল হিসাবে পুনরায় চালু করা হচ্ছে। বাংলাদেশের গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক হচ্ছে নানাভাটি হাসপাতালের স্থানীয় তথ্য সহায়তা কেন্দ্র। এই তথ্য কেন্দ্রটি গার্ডিয়ান হেলথকেয়ার, ঢাকা এবং ম্যাগনাস মেডি, মুম্বাই দ্বারা পরিচালিত। যা একটি পরামর্শকারী সংস্থা হিসেবেও পর্যটন, স্বাস্থ্য পর্যটন, ট্যুর এবং ভ্রমণ সম্পর্কে পরামর্শ দেয়া হয়। ড. শংকর বলেন, আমরা ১২ বছর থেকে কাজ করছি। গার্ডিয়ান নেটওয়ার্ক বিভিন্ন স্বাস্থ্যসেবা সেমিনার এবং প্রদর্শনী, কন্টিনিউয়িং মেডিকেল এডুকেশন (সিএমই), কর্পোরেট সোশ্যাল রেসপনসিবিলিটি (সিএসআর) এর মতো কাজ করছে। এই রোগী সহায়তা কেন্দ্রটি বাংলাদেশী রোগীদের এবং তাদের পরিবারের ক্লিনিকাল চাহিদা মেটাবে। এটি টেলিমেডিসিন সুবিধার মাধ্যমে নির্বিঘ্ন চিকিত্সা অনুমান, বাসস্থান এবং অ্যাপয়েন্টমেন্টের ব্যবস্থা, ভিসা আমন্ত্রণ এবং পোস্ট কেয়ার ফলোআপ সমর্থন নিশ্চিত করার জন্য ওয়ান স্টপ সমাধান হিসাবে কাজ করবে। এই হাসপাতালটি অনকোলজি, গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি নিউরোলজি, অর্থোপেডিকস এবং মেরুদন্ড সম্পর্কিত সমস্যাগুলির ক্ষেত্রে তাদের উন্নত চিকিত্সার জন্য পরিচিত। অনকোলজি ডাক্তারদের বেশিরভাগই প্রাক্তন অধ্যাপক বা মুম্বাইয়ের মর্যাদাপূর্ণ টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালের বিভাগের প্রাক্তন প্রধান। আমরা মালয়েশিয়া ভারত, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কা হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা সুবিধা সকল বাংলাদেশিদের মধ্যে প্রচার করছি। ম্যাগনাস মেডি ভারতের অন্যতম বিখ্যাত স্বাস্থ্যসেবা সংস্থা। ২০ টিরও বেশি দেশ থেকে রোগী এখানে সেবা নিয়েছে। শনিবার গুলশানের নিজস্ব অফিসে এই অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন- নানাবতী থেকে, ডাঃ গণেশ নাগরাজন ও ডাঃ মুজ্জাম্মিল শেখ। অনুষ্টানে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক কাউন্সিলর নুরুজ্জামান টিটু জানান- তিনি কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত হবার মুম্বাই গিয়ে এই নানাভাটি হাসপাতালে সঠিক চিকিৎসা নিয়ে দ্রুততম সময়ে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েছেন। এত দ্রুত ক্যান্সার তিন স্তরের সুচিকিৎসা পেয়ে সুস্থ হবেন এটি তার কাছেও বিস্ময় লাগছে।