শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন

কুয়েত দুতাবাস থেকে পাসপোর্ট পেতে প্রবাসীরা হয়রান

ছবি-সংগৃহিত

 

প্রবাসী কণ্ঠ প্রতিবেদক

প্রকাশ : ৩ জুলাই ২০২১, সময় বেলা ১টা

 

কুয়েতে প্রবাসীরা পাসপোর্ট পেতে প্রতিনিয়ত হয়রানী ও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। তারা দুতাবাসের কাছে প্রশ্ন রেখে জানতে চাচ্ছেন নির্ধারিত সময়ের আগে বাংলাদেশ থেকে পাসপোর্ট চলে আসার পরও কেনো তাদের পাসপোর্ট আটকে রাখা হচ্ছে ? তারা দাবী জানান, পাসপোর্টের মালিক প্রবাসী কর্মীদের কাছে ফোন করে পৌছে দেয়ার জন্য।

বাংলাদেশ দুতাবাস কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য পাসপোর্ট না পাওয়ার অভিযোগ করে কুয়েত সিটিতে বসবাসরত চট্টগ্রামের বাসিন্দা সোহেল উদ্দিন ফেসবুকে লেখেন,
“প্রবাসীদের হাতে পাসপোর্ট পেতে সময় লাগে ৯০দিন। কিন্তুু ঐ পাসপোর্ট আপনাদের কাছে বাংলাদেশ থেকে চলে আসে ৭০দিন পর। কেন আপনারা প্রবাসীদের পাসপোর্ট বিশ দিন আপনাদের কাছে রেখে দিন।

আপনাদের দায়িত্ব হচ্ছে, পাসপোর্ট আপনাদের হাতে আসা মাএ এর মালিকদের ফোন করে দিয়ে দেওয়া। কিন্তু ইদানীং দেখা যাচ্ছে পাসপোর্ট নিয়ে হয়রানি দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। অতএব আমাদেরকে হয়রানি করা বন্ধ করুন। আজ তিন মাস হতে যাচ্ছে আমার পাসপোর্ট আপনাদের কাছে এসেছে। কিন্তুু আপনারা ডেলিভারি দিচ্ছেন না।” এমন অভিযোগ অনেকের রয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন।

তবে বাংলাদেশ দুতাবাস ২ আগষ্ট পাসপোর্ট জমা নেয়া ও ডেলীভারী সংক্রান্ত এক জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, চলমান করোনা মহামারীর কারণে কুয়েত সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুতাবাস কন্স্যুলার ও পাসপোর্ট সেবা সংক্রান্ত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

এলক্ষ্য পাসপোর্ট আবেদন জমা গ্রহন ও বিতরনের জন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

এরমধ্যে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৪০০ পাসপোর্ট এর আবেদন জমা গ্রহন করা হবে।

অপরদিকে দুপুর ২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত পাসপোর্ট ডেলীভারী গ্রহনকালে বর্তমান পাসপোর্ট ও মূল ডেলীভারী স্লিপ সাথে আনার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। এই কার্যক্রম চলবে আগামী ৮ আগষ্ট পর্যন্ত।

 

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

© All rights reserved © Zahir-01743535311