রবিবার, ২০ Jun ২০২১, ০১:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম
এজেন্সীর প্রোফাইল মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে দুতাবাসে জমা দেয়া যাবে- সৌদি রাষ্ট্রদূত থার্ড টার্মিনালের সাথে মেট্রোরেল সংযুক্ত থাকবে-বিমান প্রতিমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লয়েডের রায়ের দিন পুলিশের গুলিতে কৃষ্ণাঙ্গ কিশোরী নিহত কয়েক মাসে করোনা নিয়ন্ত্রণ সম্ভব: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিদ্রোহীদের সাথে সংঘর্ষে শাদের প্রেসিডেন্ট মারা গেছেন সিকদার পরিবার নিয়ে বিভ্রান্তিকর খবরের প্রতিবাদ প্রেমিকার উপর অভিমানে আত্নহত্যার অভিযোগ চীনে ফ্লাইট চালাবে ইউএস-বাংলা দেশী-বিদেশী ৬ এয়ারলাইন্সকে বিশেষ সম্মাননা বাংলাদেশের সাথে সৌদি আরবের সম্পর্ক বহুমাত্রিক- সৌদি রাষ্ট্রদূত

দেশী-বিদেশী ৬ এয়ারলাইন্সকে বিশেষ সম্মাননা

প্রবাসী কণ্ঠ প্রতিবেদক :

 

করোনা মহামারীর সময়ে বাংলাদেশের মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য  স্বীকৃতিস্বরূপ দেশী-বিদেশী ৬টি এয়ারলাইন্স কে ‌ফ্রেন্ড ইন নীড’ বা দু:সময়ের বন্ধু সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে।

রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁ হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এভিয়েশন ও ভ্রমণ বিষয়ক প্রকাশনা বাংলাদেশ মনিটরের উদ্যোগে এই বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সম্মাননা পাওয়া এয়ারলাইন্সগুলো হলো- বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, ইউ-এস বাংলা এয়ারলাইন্স, নভোএয়ার, কাতার এয়ারওয়েজ, এমিরেটস এয়ারলাইন এবং এয়ার এরাবিয়া। এ ছাড়াও মহামারীর প্রাথমিক পর্যায়ে দেশের বেসামরিক বিমান চলাচল খাতকে দ্রুততার সঙ্গে নিউ-নরমাল অবস্থায় নিয়ে আসার লক্ষ্যে গৃহীত সুচিন্তিত, পরিনামদর্শী ও তড়িৎ পদক্ষেপের জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষকে (ক্যাব) বিশেষ ধন্যবাদ স্মারক প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিমান চলাচল ও পর্যটন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এমপি, বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম. মফিদুর রহমান, বাংলাদেশ মনিটর সম্পাদক কাজী ওয়াহিদুল আলমসহ সম্মাননাপ্রাপ্ত এয়ারলাইন্সগুলোর প্রতিনিধিবৃন্দ ও শিল্প সংশ্লিষ্ট নেতৃস্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

বক্তারা বলেন, করোনার বৈশ্বিক মহামারী শুরুর পর আকাশ পথে যাত্রী পরিবহণ প্রায় স্থবির হয়ে পড়ে, যার ফলে দেশে ও বিদেশে আটকে পড়া বাংলাদেশীরা অবর্ণনীয় ভোগান্তির শিকার হন। বাংলাদেশের আকাশ উন্মুক্ত করে দেবার সরকারী সিদ্ধান্তের পর কিছু সংখ্যক এয়ারলাইন্স দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি তাদের দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করে যথাসম্ভব স্বল্পতম সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশে নিয়মিত যাত্রীবাহী ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে। এখন আমাদের পালা এই এয়ারলাইন্সগুলোর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা।

বৈশ্বিক মহামারী করোনার প্রাদুর্ভাব শুরুর পর বাংলাদেশ সরকার গত বছরের ২২শে মার্চ নিয়মিত অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তবে সামগ্রিক অবস্থা পর্যালোচোনা ও বিশ্লেষণ করার পর অল্প কিছুদিনের মধ্যেই সরকার বাংলাদেশের আকাশ উম্মুক্ত করার ঘাষোণা প্রদান করার মাধ্যমে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনার পথকে সুগম করে দেয়।

বর্তমানে দেশী-বিদেশী ২৫টির বেশী এয়ারলাইন্স বাংলাদেশে নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে। এছাড়া আরো কিছু সংখ্যক এয়ারলাইন্স সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতির অপেক্ষায় রয়েছে।

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

© All rights reserved © Zahir-01743535311