রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৭:১৩ অপরাহ্ন

 স্কুল ছাত্রী হত্যার ঘটনার প্রধান আসামীর বাবা মা গ্রেফতার

সাভার প্রতিনিধি (ঢাকা):
সাভারে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ভাইয়ের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে স্কুলছাত্রী নীলা রায়কে (১৪) ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় আরও দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪। বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে মানিকগঞ্জের চারীগ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হলো। তবে প্রধান আসামি মিজানুর রহমান এখনও ধরা ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে।

গ্রেফতাররা হলেন- সাভারের ব্যাংক কলোনী এলাকার হাজী আইয়ুব আলীর ছেলে আবদুর রহমান (৬০) ও তার স্ত্রী নাজমুন্নাহার সিদ্দিকা (৫০)। হত্যা মামলায় আব্দুর রহমান দুই ও নাজমুন্নাহার তিন নম্বর আসামি। তারা প্রধান আসামি মিজানুর রহমানের বাবা-মা

র‌্যাব-৪ এর সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জমির উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) মিজানুর রহমানের সহযোগী সেলিম পালোয়ান (২৫) নামে এক যুবককে আটক করে পুলিশ। তবে তিনি এজাহারভুক্ত আসামি নন।

নীলার পরিবারের অভিযোগ, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় নীলাকে হত্যা করেন মিজানুর রহমান। তিনি একই এলাকার ব্যবসায়ী আবদুর রহমানের ছেলে। স্থানীয় একটি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী তিনি। এর আগে একবার টেস্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ায় এইচএসসি পরীক্ষা দিতে পারেননি। গত রোববার ( ২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ভাইয়ের সঙ্গে রিকশায় করে হাসপাতালে যাওয়ার পথে নীলাকে ছিনিয়ে নিয়ে বখাটে মিজানুর রহমান ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন। নীলা স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এ ঘটনায় নীলার বাবা নারায়ণ রায় সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে সাভার মডেল থানায় মিজানুর রহমান, তার বাবা আবদুর রহমান ও মা নাজমুন্নাহার সিদ্দিকাসহ অজ্ঞাতনামা আরও চারজনকে আসামি করে মামলা করেন

র‌্যাব-৪ এর সিপিসি-২ এর কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জমির উদ্দিন আহমেদ জানান, গ্রেফতারদের সাভার থানায় হস্তান্তর করা হবে। মামলার প্রধান আসামি মিজানুর রহমানকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

জাগোনিউজ২৪.কম

সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

© All rights reserved © Zahir-01743535311