বাহরাইনে দুই মাসে ৮ অভিবাসীর আতœহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

মধ্যেপ্রাচ্যের দেশ বাহরাইনে বাংলাদেশীসহ অভিবাসী কর্মীদের মধ্যে আতœহত্যার প্রবনতা উল্লেখ যোগ্যহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। চলতি বছরের প্রথম দুই মাসেই কর্মরত অবস্থায় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের ৮ জন অভিবাসী কর্মী আতœহত্যা করেছেন। এই অবস্থা থেকে উত্তোরণে বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশ দুতাবাস যোগব্যায়ামসহ বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম গ্রহন করেছেন। ৮০ জন কর্মীকে ৩ দিনের যোগব্যায়াম কোর্স করানো হয়েছে। এতে কর্মীদের মানবিকভাবে চাপমুক্ত ও কর্মোদ্যমী থাকতে সহায়তা করবে।

গতকাল বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশ দুতাবাসের কাউন্সিলর (শ্রম) শেখ মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম এর পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি বাহরাইনে অবস্থানরত অভিবাসী কর্মীদের মধ্যে আতœহত্যার প্রবনতা উল্লেখ যোগ্যহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। চলতি বছরের জানুয়ারী ও ফেব্রুয়ারী মাসেই বাহরাইনে কর্মরত অবস্থায় বিভিন্ন দেশের ৮ জন অভিবাসী কর্মী আতœহত্যা করেন। বিষয়টি খুবই দু:খজনক এবং উদ্বেগের।

বাহরাইনস্থ বাংলাদেশ দুতাবাস আতœহত্যার বিষয়টিকে গুরুত্বসহকারে বিবেচনায় নিয়ে, বাহরাইনে কর্মরত বাংলাদেশী কর্মীদের আতœহত্যা থেকে বিরত থাকার নিমিত্তে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম গ্রহন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাহরাইনের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান এনীনা কন্ট্রাকটিং কোম্পানীর একটি ল্যাবার ক্যাম্পে অবস্থানরত ৮০ বাংলাদেশী কর্মীকে নিয়ে (১৮-২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ পর্যন্ত) ৩ দিনের যোগব্যায়াম কোর্সের আয়োজন করা হয়।

উক্ত কোর্স প্রবাসী কর্মীদের মানবিকভাবে চাপমুক্ত ও কর্মোদ্যমী থাকতে সহায়তা করবে এবং বাংলাদেশী কর্মীরা স্বত:স্ফুর্তভাবে উক্ত কোর্সে অংশগ্রহন করেন। বাহরাইনস্থ বেসরকারী প্রতিষ্ঠান ‘আর্ট অফ লিভিং বাহরাইন ’ উল্লেখিত কোর্সটি কোনরুপ আর্থিক সংশ্লেষ ব্যতিত সম্পন্ন করতে সহায়তা করেন। উল্লেখ্য বাহরাইনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশী কর্মীদের ক্যাম্পে পর্যায়ক্রমে এ ধরনের প্রোগ্রাম আয়োজনের সিদ্ধান্ত হয়েছে।