২০২০ সালে বিশ্বের সর্বাধুনিক বোয়িং ৭৩৭-ম্যাক্স যুক্ত হবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সে

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২০ সালের মার্চ মাসে বেসরকারী বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বহরে বিশ্বের সর্বাধুনিক মডেলের বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ উড়োজাহাজ যুক্ত হতে যাচ্ছে। আন্তজার্তিক লিজিং কোম্পানী এয়ারক্যাপ ও দ্য বোয়িং কোম্পানীর সাথে যৌথ চুক্তি অনুযায়ী প্রথম এয়ারক্রাফটটি বহরে যোগ হওয়ার পর চায়না, চেন্নাইসহ অন্যান্য রুটে ফ্লাইট অপারেশন শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে।

আজ (১৯ ফেব্রুয়ারী) মঙ্গলবার বিকেলে খিলক্ষেতের হোটেল দ্য মেরিডিয়ান এ আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আফিস। এসময় এয়ারক্যাপ এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও চীফ কর্মাশিয়াল অফিসার মি. ফিলিপ স্ক্রাগস্, লিজিং কোম্পানীর সুতেশ সেলভারাতনাম, দ্য বোয়িং কোম্পানীর ডাইরেক্টর সেলস্ এন্ড মার্কেটিং মি. আহসেন রাজপুত এবং ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের জিএম মার্কেটিং সার্পোট (এন্ড পিআর) মো. কামরুল ইসলামসহ এয়ারলাইন্সের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তার বক্তব্য বলেন, বিশ্বের অত্যন্ত গ্রহনযোগ্য এয়ারক্র্যাফট হচ্ছে বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স-৮। যা ২০১৭ সালে বিমান পরিবহন সেবায় অন্তর্ভূক্ত হয়েছে। বাংলাদেশে ৭৩৭ ম্যাক্স এয়ারক্র্যাফটের প্রথম অপারেটর হবে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সই। কারণ আমরা যে এয়ারক্র্যাফটের জন্য এয়ারক্যাপ এর সাথে চুক্তি করেছি, সেই এয়ারক্রাফটটি ২০২০ সালের শুরুর দিকে (মার্চ) বহরে যুক্ত হবে বলে আশা করছি। এরআগে আর কোন এয়ারলাইন্সের বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স যুক্ত হওয়ার পরিকল্পনা নাই। তাই আমরাই বাংলাদেশে প্রথম ৭৩৭ ম্যাক্স দিয়ে ফ্লাইট অপারেটর করবো। তিনি বলেন , আমাদের বিমান বহরে এমন কোন এয়ারক্রাফট নেই, যা উৎপাদন প্রক্রিয়ার মধ্যে নেই। আর এয়ারক্যাপ হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ বানিজ্যিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। যাদের মালিকানায় ১ হাজারেরও অধিক এয়ারক্রাফট আছে এবং আরো ৩০০ এয়ারক্রাফট ক্রয়ের জন্য প্রক্রিয়াধীন আছে।

ইমরান আসিফ বলেন, আগামী ৩১ মার্চ থেকে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম গন্তব্য ভারতের চেন্নাইতে সপ্তাহে ৩দিন ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে। এই প্রথম বাংলাদেশ থেকে সরাসরি চেন্নাই ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে এয়ারলাইন্সটি। তিনি বলেন, শীগগীর আরো দুটি ব্রান্ড নিউ এটিআর ৭২-৬০০ মডেলের এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত হবে। যাত্রী সাধারণের চাহিদা অনুযায়ী ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স বেসরকারী এয়ারলাইন্স যা উৎপাদনকারী ফ্যাক্টরী থেকে সরাসরি এয়ারক্রাফট সংগ্রহ করছে।

এই এয়ারক্রাফটের কেবিন ডিজাইন ও ইন-ফ্লাইট এন্টারটেইনমেন্ট সিস্টেম বিশ্বব্যাপী নতুন নতুন গন্তব্য জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তুলনামূলক কম খরচ, পরিবেশবান্ধব ও সময়ের কারণে বিশ্বব্যাপি এয়ারলাইন্স কোম্পানীর কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।