আমিরাতে ৩ শতাধিক প্রবাসীর দেশে ফেরার আকুতি

আরব আমিরাত প্রতিনিধি

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবির শিল্প নগরী ‘মোসাফফার ৪০ নং আল ওয়াসিতা’ নামে একটি কোম্পানিতে তিন শতাধিক শ্রমিক খেয়ে না খেয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন। এর মধ্যে অর্ধশত বাংলাদেশী শ্রমিক বলে জানা গেছে। মালিকপক্ষ তাদের সাত মাস ধরে বেতন ও খাদ্য দিচ্ছে না। যার ফলে তাদের প্রতিটি মুহুর্ত দুর্বিষহ অবস্থায় কাটছে।

ইতোমধ্যে অনেকের ভিসা ও স্বাস্থ্য কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এরজন্য তারা স্বাধীনভাবে চলাফেরা করতে পারছেন না। কোনো রোগব্যাধি হলে চিকিৎসা সেবাও নিতে পারছেন না। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি প্রবাসে বেকার হওয়ায় তাদের পরিবারেও নেমে এসেছে কালো মেঘের ছায়া।

এসব রেমিট্যান্সযোদ্ধার দূতাবাস ও সরকারের কাছে আকুতি, তারা ফিরে যেতে চান তাদের স্বজনদের কাছে। আমিরাত সরকারকে নিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছেন বাংলাদেশ দূতাবাস বলে জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত।

অনেকে স্থানীয় আদালতে মামলা করে কোম্পানির নতজানুর কারণে তাদের রায় বার বার পিছিয়ে যাচ্ছে। মালিকপক্ষ তাদের বাসস্থানের ভাড়া পরিশোধ না করায় বাড়ি থেকে বের করার জন্য বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন করা হয়। পার্শ্ববর্তী অন্যান্য দেশের দূতাবাস নিজ নিজ দেশের শ্রমিকদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করলেও বাংলাদেশিরা নিজ দেশের দূতাবাস থেকে কোনো খাবার ও সহযোগিতা পাননি বলে অভিযোগ করেন। দূতাবাস ও সরকারের কাছে আবেদন, তাদের পাওনা আদায় করে দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হোক।

দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডা. মোহাম্মদ ইমরান বলেন, ভুক্তভোগী শ্রমিকদের খবর পাওয়ার পর ব্যবস্থা নিয়েছে দূতাবাস। আগামীতে স্থানীয় আইন মেনে চলার জন্য সবাইকে পরামর্শও দেন তিনি। দূতাবাস ও এসব রেমিট্যান্সযোদ্ধার সহযোগিতায় এগিয়ে এসে তাদের স্বজনদের মুখে হাসি ফোটাবেন এমনটাই প্রত্যাশা সবার।