মেসিদের সঙ্গে দেখা করতে চান ক্ষুব্ধ ম্যারাডোনা

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক:
এবারের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা মূল পর্বের টিকেট পেয়েছে বেশ কাঠখড় পুড়িয়ে। তবুও দলটা যখন আর্জেন্টিনা, প্রত্যাশা তো আর থেমে থাকে না। ফেভারিট না হলেও গ্রুপ পর্বেই আর্জেন্টিনাকে পড়তে হবে অগ্নিপরীক্ষার মুখোমুখি, এমনটা কে ভেবেছিল! প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ড্র ও দ্বিতীয় ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে পরাজয় দ্বিতীয় রাউন্ড নিয়ে শঙ্কায় ফেলে দিয়েছে লিওনেল মেসিদের। অন্য আর্জেন্টাইনদের মতো কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনাও দলটিকে নিয়ে ভীত। তাই শেষ বাঁচা-মরার লড়াইয়ে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার আগে পুরো দলকে একবার আলোচনায় বসতে আহ্ববান জানান ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ক।

আর্জেন্টিনার কাছে ফুটবলের ঈশ্বর দিয়েগো ম্যারাডোনা। ১৯৮৬ সালে যিনি আর্জেন্টাইনদের হাতে তুলে দেন বিশ্বকাপের ট্রফি। নিজ হাতে দলটাকে সাজিয়ে তুলেছিলেন পরাশক্তির কাতারে। দলের বর্তমান এমন ভরাডুবিতে স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ এই ৫৭ বছর বয়সী তারকা। তিনি বলেন, শেষ ম্যাচের আগে পরিকল্পনা সাজানোর জন্য দলের প্রত্যেক সদস্যকে আলোচনায় বসা উচিত।

প্রথম দুই ম্যাচে বাজে পারফরম্যান্সের পর ক্ষুব্ধ ও বিমর্ষ ম্যারাডোনা আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ক্লাউদিও তাপিয়ার প্রতিও সমালোচনা করতে ছাড়েননি। তিনি বলেন, ‘ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলের পরাজয় আমাদের অনেক ক্ষতির সম্মুখীন করেছে। আমাদের এ জন্য অনেক ভুগতে হবে। আমি মনে করি, দলের এমন ভরাডুবির জন্য এএফএ সভাপতি ক্লাউদিও দায়ী। কর্তৃপক্ষের দল পরিচালনায় ব্যর্থতা দলের এমন পরাজয়কে ত্বরান্বিত করেছে।’