বিশ্বকাপ দেখার সময় গুলিতে নিহত ১৪!

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক:
এবারের বিশ্বকাপে জার্মানিকে হারিয়ে প্রথম ম্যাচেই দেশকে উদযাপনের উপলক্ষ্য এনে দিয়েছেন মেক্সিকোর ফুটবলাররা। গতকাল দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাঠে নেমেছিলো মেক্সিকো। আর তাই খেলা দেখার জন্য আগেভাগেই টেলিভিশনের সামনে বসে গিয়েছিলেন দেশটির সাধারণ মেক্সিকানরা।

কিন্তু শনিবার (২৩ জুন) রাতে সেই সময়টিতে মেক্সিকোর তিনটি ভিন্ন ভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়ে ১৪ জনকে হত্যা করেছে একদল বন্দুকধারী। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এএফপির বরাত দিয়ে দ্য হিন্দু তাদের এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার রাতে প্রথম গুলির ঘটনা ঘটে হুয়ারেজ শহরের দক্ষিণ প্রান্তে। সেখানে ম্যাচ দেখতে একটি জায়গায় জড়ো হয়েছিলেন আট জন। হঠাৎই একদল বন্দুকবাজ সেখানে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে ছয় জনকে হত্যা করে। গুরুতর জখম হন আরও দু’জন।

এর কিছুক্ষণ পরই একই শহরের একটি পার্লারে খেলা দেখার সময় পাঁচজনের ওপর গুলি চালায় বন্দুকধারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আচমকা পার্লারের সামনে একটি নীল ভ্যান এসে থামে। সেখান থেকে একদল বন্দুকবাজ নেমে পার্লারে ঢুকে গুলি চালিয়ে পাঁচজনকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এছাড়া স্থানীয় সময় রবিবার (২৪ জুন) ভোরে হুয়ারেজ শহরের একটি পার্টিতে তৃতীয় বারের মত গুলিচালনার ঘটনা ঘটে।

প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানিয়েছে, পার্টি চলাকালীন তিন ব্যক্তিকে সেখান থেকে ডেকে নিয়ে যায় কয়েকজন। তারপর তাদের গুলি করে মারা হয়। কে বা কারা এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটাল তা জানতে তদন্ত শুরু হলেও এখনও কোনও সন্ধান পায়নি পুলিশ।

দেশটির এই সীমান্ত শহরটিতে গুলির ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। শুধুমাত্র চলতি মাসেই এই শহরে গুলির ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১২৮ জন।