বিদেশে নারী কর্মীদের অধিকার নিশ্চিতে সরকার বদ্ধপরিকর- প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

aaaaaaaaaaaaa

নিজস্ব প্রতিবেদক

যেসব নারী কর্মী বিদেশে আছেন, তাদের অধিকার ও কল্যাণ নিশ্চিত করতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। তাদের খাবার, চিকিৎসা, নিরাপত্তা, বেতন-ভাতার সমস্যা দুর করতে দুতাবাস মনিটরিং করছে। শুধু তাই নয়, নিয়োগকর্তা কর্তৃক কোন নারী শ্রমিক নির্যাতনের শিকার হলে দুতাবাসের মাধ্যমে তাদের উদ্ধার করার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে।

বুধবার ঢাকার সিরডাপ মিলনালয়ের আন্তজার্তিক সম্মেলন কক্ষে “মাল্টি স্টেকহোল্ডার ডায়ালগ অন উইমেন মাইগ্রান্ট ওয়ার্কার : পোটেনশিয়াল, চ্যালেঞ্জস এন্ড স্ট্র্যাটেজিক ফর দ্যায়ার রাইটস এন্ড এমপাওয়ারমেন্ট” শীর্ষক সংলাপে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদিশেক কর্মসংস্থাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন।

সংলাপে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাসিমা বেগম এনডিসি’র সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. নমিতা হালদার এনডিসি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের সচিব বলেন, নারী কর্মীদের সুরক্ষা ও মর্যাদা নিশ্চিত করার সময় এসেছে। এ বিষয়ে সংলাপে উপস্থিত সকলের সুপারিশ ও মতামত আহ্বান করেন। তিনি বলেন, বিশেষ করে নারী কর্মীদের জীবনমান এর উন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় আপনাদের মতামত জরুরী।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের আন্তর্জাতিক সচিব কেন্দ্রীয় কমিটির রেখা সাহা।

পর্যালোচনামূলক বক্তব্য দেন ইউএন উইমেন বাংলাদেশ এর কাািন্ট্র রিপ্রেজেনটেটিভ মিজ সুকো ইসিকাওয়া। অনুষ্ঠানে অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন ২জন নারী অভিবাসী কর্মী শাজানাজ পারভীন ও শিল্পী বেগম।

উল্লেখ্য ইউএন উইমেন বাংলাদেশ ও মহিলা পরিষদ এর সহযোগিতায় এ সংলাপটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংলাপে আরো উপস্থিত ছিলেন শ্রম কল্যাণ সম্মেলন ২০১৮ তে অংশগ্রহণকারী ২৬ দেশের ২৮ শ্রম উইংয়ের ৪৪ জন কর্মকর্তা, অভিবাসন বিষয়ক এনজিও ও সিভিল সোসাইটির প্রতিনিধিরা।