স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধুর আত্মহত্যা

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক:
গাজীপুরের কাপাসিয়ায় তুচ্ছ ঘটনার জেরে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে বুধবার এক অন্তঃস্বত্ত্বা গৃহবধু আত্মহত্যা করেছেন। তার নাম শারমিন আক্তার ওরফে শাম্মি (২৫)। তিনি কাপাসিয়ার খোদাদিয়া গ্রামের চাঁনমিয়ার মেয়ে।

কাপাসিয়া থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক ও নিহতের ফুফাত বোন বৃষ্টি আক্তার জানান, গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলা সদরের বরুন রোড সংলগ্ন হুমায়ূনের বাসায় স্বামী আলমগীর হোসেন ও সন্তানের সঙ্গে থাকতো শারমিন। বুধবার সকালে ৮ বছরের স্কুল পড়ুয়া ছেলেকে জুতা পড়ানো নিয়ে শারমিনের সাথে স্বামীর বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে অন্তঃস্বত্ত্বা শারমিনকে মারধর করে তার স্বামী। পরে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে শারমিন ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।