স্কুলের টয়লেটে নিয়ে ছাত্রকে কোপাল ছাত্রী

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক:
ভারতের লখনৌয়ের একটি স্কুলে হৃত্বিক শর্মা নামে প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রকে টয়লেটে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে ওই স্কুলেরই ষষ্ঠ এক ছাত্রী। মঙ্গলবার ত্রিবেণীনগরে ব্রাইটল্যান্ড ইন্টার কলেজ স্কুলে এ ঘটনা ঘটে।

হৃত্বিক শর্মা কিং জর্জস মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটির ট্রমা সেন্টারে (KGMU) মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। KGMU কর্তৃপক্ষের তরফে বুধবার বিষয়টি প্রকাশ্যে আনা হয়।

হাসপাতালের বেডে শুয়েই হৃত্বিক শর্মা পুলিশকে জবানবন্দিতে বলে, ‘বয় কাট চুলের একটি দিদি আমায় ডেকে বলল, এক শিক্ষক আমায় ডাকছেন। ওই দিদি আমাকে বাথরুমে নিয়ে গিয়ে চড় মারতে শুরু করে। এরপর ধারালো একটা কী দিয়ে আমার উপর আক্রমণ করে সে। আমি যখন জিজ্ঞেস করলাম কেন আমাকে মারছো, বলল – আমি চাই আজ স্কুল তাড়াতাড়ি ছুটি হয়ে যাক।’

যদিও স্কুলের তরফে প্রাথমিকভাবে শিশুটির বাবা-মাকে জানানো হয়েছিল, তাদের ছেলের একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। সংবাদমাধ্যম ট্রমা সেন্টারে পৌঁছনোর পরই পুলিশের কাছে লিখিত আকারে অভিযোগ জানায় স্কুল কর্তৃপক্ষ। সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি পুলিশকে না-জানানোয় স্কুলকে শো-কজ নোটিশ পাঠিয়েছেন জেলার স্কুল ইনস্পেক্টর। অভিযুক্ত ছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।