আর কোনও ‘ডিভি লটারি’ নয়!

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক:
ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন নীতির খোলনলচে পাল্টে দেবার ইঙ্গিত দিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে আর কোনও ‘ডাইভারসিটি ভিসা থাকবে না’।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রোববার (১৪ জানুয়ারি) দেয়া একট টুইটে এই মনোভা ব্যক্ত করেন। সেখানে তিনি তার ‘সবার আগে আমেরিকা’(“America First”) নীতির প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, বাছবিচারহীন ‘ডিভি লটারি’র মাধ্যমে কেউ আর যুক্তরাষ্টে অভিবাসী হয়ে আসতে পারবে না। বরং এখন থেকে কেবল বাছাই করা মেধাবী লোকেরাই যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হিসেবে আসবে।

এজন্য রোববার ‘মেধাভিত্তিক অভিবাসন নীতি’ প্রণয়ন করার ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হিসেবে কেবল সেইসব লোকদেরই চান যারা আমেরিকাকে ‘আবারও শক্তিশালী ও মহান’ করে তুলতে সহায়ক হবে।
রোববার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একাধিক টুইট বার্তা পোস্ট করেন। এসবের একটি হুবহু তুলে দেয়া হলো:

“I, as President, want people coming into our Country who are going to help us become strong and great again, people coming in through a system based on MERIT. No more Lotteries! #AMERICA FIRST,”

‘মেধাভিত্তিক অভিবাসন ব্যবস্থা’ হলে যুক্তরাষ্ট্রে কেবল সেইসব লোকেরাই প্রবেশ করতে পারবে, যারা মেধাবী এবং যাদের ‘চমৎকার অতীত রেকর্ড’ রয়েছে।

এছাড়া তিনি বলেন, তার কাছে সবার আগে মুখ্য বিষয় হচ্ছে আমেরিকানদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার পাশাপাশি মাদকের ব্যাপক প্রবেশে ইতি টানা।

ট্রাম্প যে মেধাভিত্তিক অভিবাসন ব্যবস্থার কথা বলছেন তাতে করে যুক্তরাষ্ট্রে মোট অভিবাসীর হার কমবে। এর ফলে ভারতের মতো দেশগুলো বড় ধরনের সুফল ভোগ করবে।
ট্রাম্পের নতুন এই অভিবাসন নীতি বাস্তবায়িত হলে বিশ্বের বহু দেশের কোটি কোটি অভিবাসনপ্রত্যাশীর স্বপ্ন চুরমার হয়ে যাবে। কয়েক দশক ধরে চলা ডাইভারসিটি লটারির ভিসা পদ্ধতির মাধ্যমে গ্রিন কার্ড পাওয়ার পথও চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে। বিভিন্ন দেশের মানুষ নিজেদের মেধাগত যোগ্যতা ছাড়া অন্য কোনো উপযুক্ত কারণ দেখিয়েও আর যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসী হতে পারবে সুত্র: বাংলানিউজ