আফসার খাঁন স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণ

afsar kha

নিজস্ব প্রতিবেদক

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, চট্টগ্রাম এর চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহিদা ইসলাম বলেন, একটি উন্নত জাতি গঠনে শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। আর শিক্ষা অর্জনের জন্য মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গুরুত্ব অত্যাধিক। চট্টগ্রামের মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং তাঁর পরিবার চট্টগ্রামসহ সারা বাংলাদেশে অনেকগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। যা শিক্ষা বিস্তারে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের জন্য নুরুল ইসলাম যে শিক্ষাবৃত্তি চালু করেছেন তা অত্যন্ত প্রসংশনীয়।

আজ মঙ্গলবার (২ ডিসেম্বর) চট্টগ্রামের হাজেরা-তজু স্কুল এন্ড কলেজ ও চিটাগাং কিন্ডার গার্টেন ক্যাম্পাসে নুশিস আয়োজিত আফসার খাঁন স্মৃতি বৃত্তি ২০১৭ এর পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সানোয়ারা গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও তরুন শিল্পপতি জাহিদুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহিদা ইসলাম আরো বলেন, সানোয়ারা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিশিষ্ট শিল্পপতি মুজিবুর রহমান তাঁর পিতার ন্যায় চট্টগ্রামের শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। হাজেরা-তজু স্কুল এন্ড কলেজ ও চিটাগাং কিন্ডার গার্টেন এর মত অত্যাধুনিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করে শিক্ষিত জাতি গঠনে অবদান রাখছেন।

সভাপতি জাহিদুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাপনাকে সর্বাধিক গুরুত্ব প্রদান করে আসছে। তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা বছরের প্রথম দিনই হাতে বই পেয়েছে। শিক্ষার্থীদের মেধা ও মননের জন্য শিক্ষা বৃত্তি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য নুরুল ইসলাম তার শিক্ষা সমন্বয় (নুশিস) কার্যক্রম অব্যাহত রাখবেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ হাবিবুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার এস.এম. মোবাশ্বের হোসাইন, শিক্ষানুরাগী, সমাজসেবক ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর প্রাক্তন কর্মকর্তা মাত্বর আব্দুল মোমেন, জেলা শিক্ষা অফিসার হোসনে আরা বেগম, হাজেরা তজু বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ দবির উদ্দিন খাঁন এবং মরহুম আফসার খাঁন এর মেঝ ছেলে মহিউদ্দিন খাঁন।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন চিটাগাং কিন্ডার গার্টেন এর অধ্যক্ষ ফাতেমা ইয়াসমিন, হাজেরা তজু স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক বাবু সজল কুমার দত্ত।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন হাজেরা তজু বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবু বক্কর ছিদ্দিকী এবং নুরুল ইসলাম পৌর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা বিচিত্রা চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে ৫ম ও ৮ম শ্রেণির ৫৭৪ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। ৩টি বিভাগে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়। প্রথম বিভাগে প্রতিজন ২০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় বিভাগে ১৫ হাজার টাকা এবং তৃতীয় বিভাগে ১০ হাজার টাকা করে বৃত্তি প্রদান করা হয়। সাধারণ গ্রেডে ৬০ জন শিক্ষার্থীকে ২ হাজার টাকা করে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এছাড়াও উক্ত বৃত্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী সকলকে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয় বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।