রিজেন্ট এয়ারোয়েজে নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০

Regent-New-Aircrft-120171025133619

প্রবাসী কণ্ঠ ডেস্ক

দেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি বিমানসংস্থা রিজেন্ট এয়ারওয়েজের বহরে যুক্ত হয়েছে আরও একটি নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ। এ নিয়ে রিজেন্ট বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা ৮টি হলো। এর মধ্যে ৬টি বোয়িং এবং দুটি ড্যাশ।

বুধবার সকাল পৌনে ৯টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পর দুটি জলযান থেকে পানি ছিটিয়ে ‘ওয়াটার ক্যানন স্যালুট’ এর মাধ্যমে নতুন উড়োজাহাজটিকে অভ্যর্থনা জানানো হয়।

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের চিফ পাইলট ক্যাপ্টেন আজিজ আব্বাসী রফিক চীনের সাংহাই বিমানবন্দর থেকে উড়াল দিয়ে ৫ ঘন্টায় আকাশপথ পাড়ি দিয়ে উড়োজাহাজটি নিয়ে ঢাকায় পৌঁছান।

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) লে. জেনারেল (অ:) এম. ফজলে আকবর উড়োজাহাজটি আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করেন।দুটি জলযান থেকে পানি ছিটিয়ে ‘ওয়াটার ক্যানন স্যালুট’ এর মাধ্যমে নতুন উড়োজাহাজটিকে অভ্যর্থনা জানানো হয়

এ সময় রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্রধান কর্পোরেট এফেয়ার্স আকতার ইউ আহমেদ, প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা হানিফ জাকারিয়া, পরিচালক (প্রশাসন ও নিরাপত্তা) আমিনুল ইসলাম, পরিচালক (ফ্লাইট অপারেশন) ক্যাপ্টেন রফিকুর রহমান, পরিচালক (প্রকৌশল) ডিলেন মরবিন ভাষকরণ, পরিচালক (আইটি) জুয়ের শফিক সামী, পরিচালক (জনসংযোগ) মশিউর রহমান, প্রধান হিসাব কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, ডিজিএম কে. এম জাফরসহ প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ উপলক্ষে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

১৭৬ আসনের এই উড়োজাহাজে ৮টি বিজনেস এবং বাকি ১৬৮টি ইকোনমি আসন। আসন বিন্যাস ও পরিসরতার জন্য এই উড়োজাহাজে ভ্রমণ বেশ আরামদায়ক হবে।

উড়োজাহাজ গ্রহণ অনুষ্ঠানে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম. ফজলে আকবর, বলেন, ‘চলতি বছরে আন্তর্জাতিক গন্তব্যে সম্প্রসারণ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নতুন প্রজন্মের সবচেয়ে আধুনিক প্রযুক্তির এই উড়োজাহাজটি বহরে যুক্ত করা হয়েছে। এটি দিয়ে আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাওয়া সৌদি আরবের দাম্মাম রুট পরিচালনা করা হবে। তখন রিজেন্টের মাসিক ফ্লাইট সংখ্যা ৯০০টিতে দাঁড়াবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

২০১০ সালের ১০ নভেম্বর দুটি ড্যাশ-৮ কিউ উড়োজাহাজ দিয়ে যাত্রা শুরু করে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। ২০১৩ সালের ১৫ জুলাই ২টি বোয়িং উড়োজাহাজ দিয়ে কুয়ালালামপুর রুটের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গন্তব্য অভিষেক হয়। বর্তমানে মাসকাট, দোহা, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, কলকাতা, কাঠমান্ডু আন্তর্জাতিক রুটে এবং ঢাকা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অভ্যন্তরীণ রুটে চলছে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ।