সাকিবই টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক

c814112b5041d501eb18bfdc2109476f-58fb470ee9df5

প্রবাসীকণ্ঠ ডেস্ক
মাশরাফি মুর্তজার উত্তরসূরি হলেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের নতুন অধিনায়ক এ বাঁহাতি অলরাউন্ডার। শনিবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভা শেষে সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিশ্চিত করেছেন এ খবর।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে হঠাৎ মাশরাফি অবসরের ঘোষণা দেন। তখন থেকেই খোঁজা হচ্ছিল নতুন অধিনায়কের নাম। তার উত্তরসূরি হওয়ার দৌড়ে অবশ্য শুরু থেকেই শোনা যাচ্ছিল সাকিবের নাম। বোর্ড সভাপতি শ্রীলঙ্কায় থাকার সময়েই আভাস দিয়েছিলেন সাকিবের অধিনায়কত্বের ব্যাপারে। শেষ পর্যন্ত শনিবারের বোর্ড সভা শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে সেই ঘোষণা দিয়েছেন বিসিবি প্রধান।

বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার হলেও টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়ক হিসেবে সাকিব ব্যর্থ। ২০০৯ থেকে ১০ সাল পর্যন্ত চারটি টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব করেছিলেন তিনি। চারটি ম্যাচেই হার মেনেছিল টাইগাররা। ২০১১ সালে জিম্বাবুয়ে সফর থেকে বাংলাদেশ দল ব্যর্থ হয়ে ফেরার পর সাকিবকে সরিয়ে মুশফিককে সব ফরম্যাটের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয় বিসিবি।

২০১৪ সালে মাশরাফির হাতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়, আর মুশফিক শুধু থাকেন টেস্ট অধিনায়ক। গত ৪ এপ্রিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরু হওয়ার ঠিক আগে ২০ ওভারের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেন মাশরাফি। তখনই টি-টোয়েন্টির পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে সাকিবের নাম উঠে আসে আলোচনায়।

শ্রীলঙ্কায় নাজমুল হাসান জানিয়েছিলেন, সাকিবের পরবর্তী টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হওয়ার উজ্জ্বল সম্ভাবনা। শনিবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবির সভায় সেই সম্ভাবনাই বাস্তবায়িত হলো।