এখন সেই ‘নো বিজনেসের’ দিন শেষ : মাতলুব

matlub20170413153929

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতির (এফবিসিসিআই) সভাপতি ও নিটল-নিলয় গ্র“পের চেয়ারম্যান আবদুল মাতলুব আহমাদ বলেছেন, আগে এনবিআরের কর্মকর্তারা ব্যবসায়ীদের কাছে গেলে ব্যবসায়ীরা বলতেন ‘নো বিজনেস’। তখন এনবিআর বলতো ‘নো টেনশন’- এই বলে সনদ দিয়ে আসত। এখন সেই ‘নো বিজনেসের’ দিন শেষ। এখন এনবিআর ডিজিটাল হয়েছে। তাই কর ফাঁকির সুযোগ কমেছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিটের (এলটিইউ) সম্মেলন কেন্দ্রে তিনি এসব কথা বলেন।

মাতলুব বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) বাঘের থাবা ছেড়ে ফুলের রূপ ধারণ করেছে। আমরা সেই ফুলের সৌরভ নিতে আজ বৃহৎ করদাতা ইউনিটে এসেছি। আগে এনবিআরকে সবাই ভয় পেত। সেই সংস্কৃতির ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। এ পরিবর্তন দরকার ছিল।

তিনি আরও বলেন, আমি কখনও বৃহৎ করদাতা ইউনিট বা কর অফিসে আসিনি। এই প্রথম এসেছি। এসে আমি উৎসবমুখর পরিবেশ দেখে বেশ আনন্দিত। এনবিআরের বন্ধুত্বসুলভ আচরণে আমি আজকে আসতে বাধ্য হয়েছি।

এলটিইউয়ের কমিশনার আলমগীর হোসেন বলেন, ‘নববর্ষ বাংলার ঐতিহ্য। এ ঐতিহ্যকে ধারণ করে আমরা ‘হালখাতা’ আয়োজন করেছি। এই আয়োজনে করদাতারা ব্যাপক সাড়া দিয়েছে। রাজস্ব কত সংগ্রহ হয়েছে সেটা বড় বিষয় নয়। আমরা ভয় কাটিয়ে করদাতাদের আনতে পেরেছি সেটাই আমাদের প্রাপ্তি।

উল্লেখ্য, ‘বকেয়া আদায় নয়, পরিশোধ’ স্লোগান সামনে রেখে কর দিতে উৎসাহ জোগাতে বাংলা নতুন বছর উপলে চৈত্র সংক্রান্তিতে এ ‘হালখাতা’ উৎসবের আয়োজন করেছে এনবিআর।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এনবিআরের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল রউফ, ব্যাংক এশিয়ার এমডি আরফান আলী, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের চেয়ারম্যান নাছির এ চৌধুরী প্রমুখ।