মোবাইল ফোনে বিদেশে বিয়ে স্বামীর স্বীকৃতি না পেয়ে কুপিয়ে জখম

0

মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি

প্রবাসে থাকা স্বামীর স্বীকৃতি না দেয়ায় দেশে স্ত্রীকে কুপিয়ে জখম করেছে স্বামী। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় এঘটনা ঘটে।

প্রবাসী স্বামী ও তার সহযোগিতারা এ ঘটনাটি ঘটিয়েছেন দাবী করে পরিবারের সদস্যরা বলছেন, দেড় বছর আগে মোবাইলে প্রবাসীর সাথে বিয়ে হয় স্কুল স্কুলছাত্রীর। সে বিয়ে অস্বীকার করায় দেশে ফিরে স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, দেড় বছর আগে কালকিনি উপজেলার উত্তর সাহেব রামপুর গ্রামের ছালাম আকনের ছেলে প্রবাসী রুমন আকদের সাথে উত্তর রমজানপুর গ্রামের মোফাজ্জল হাওলাদারের মেয়ে সুখতারা আক্তারের মোবাইলে বিয়ে হয়। বিয়ের পর দুই পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সর্ম্পকের অবনতি ঘটে। একপর্যায়ে মোবাইলের বিয়ে ও স্বামীকে অস্বীকার করে স্কুলছাত্রী। কিছুদিন আগে রুমন বিদেশ থেকে বাড়ি চলে এলেও স্বামী হিসেবে তাকে মেনে নেয়নি স্কুলছাত্রী। এরই জের ধরে মঙ্গলবার দুপুরে স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে জখম করা হয়। আহত সুখতারা আক্তার কালকিনি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী।এ ঘটনার পর কালকিনি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও কাউকে আটক করতে পারেনি।

সুখতারা আক্তারের পরিবার জানায়, মোবাইলের বিয়ে ও স্বামীকে অস্বীকার করায় রুমন আকন ও তার সহযোগীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে এ বিষয়ে রুমন ও তার পরিবারের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানা পুলিশের ওসি মোফাজ্জেল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, বিয়ে সংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে এমনটি ঘটেছে। মেয়ে তার স্বামীকে মেনে না নেয়ায় মারধর করা হয়েছে। মেয়ের পরিবার যদি মামলা করে তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।