বায়রার বিভক্তির কারণে সম্প্রসারণ হচ্ছে না শ্রমবাজার

2

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নিজেদের বিভক্তির কারণে শ্রমবাজার সম্প্রসারণ প্রভাবিত হচ্ছে। মালয়েশিয়া ও সৌদি আরবের শ্রমবাজার নিয়ে মতবিনিময় সভায় এমন অভিযোগ বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) বিভক্ত দুই পক্ষের নেতাদের। সেই সাথে এ খাতে সিন্ডিকেট ভাঙার দাবিও জানান তারা। মতবিনিময় সভার শেষ দিকে তর্কে জড়িয়ে পড়েন বায়রার বর্তমান কমিটির দুই পক্ষ। মতবিনিময় সভার শেষ দিকে নিজেদের মধ্যে বাদানুবাদে জড়ায়, জনশক্তি রপ্তানিকারকদের সংগঠন-বায়রায় বর্তমান কমিটির দুপক্ষ। সভাপতি বেনজির আহমেদ ও মহাসচিব শামীম আহমদ চৌধুরী নোমানের বিপক্ষের অংশ কথা বলতে গেলে শুরু হয় হট্টগোল। মালয়েশিয়া ও সৌদি আরবের শ্রম বাজারে সমস্যা দূর করার লক্ষ্যে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হলেও, শুরু থেকেই মুখোমুখি অবস্থানে ছিলো, সভাপতি-মহাসচিব ও সিনিয়র সহসভাপতি-সহসভাপতি পক্ষ। নিজেদের অবস্থান ও শক্তি জানান দেয়াটাই যেন ছিলো মূল লক্ষ্য। এর আগে সভার শুরুতে বায়রা সভাপতি বেনজীর আহমেদ জানান, দুদেশের শ্রমবাজারের সমস্যা ও সিন্ডিকেটমুক্ত করতে কাজ করছে সংগঠনটি। এতে, বিভ্রান্তির কোনো অবকাশ নেই। তিনি বলেন, জনশক্তি রপ্তানিতে আর যেন কোন সিন্ডিকেট না হয়।বেশ কিছু শ্রমবাজারের প্রতিবন্ধকতা বিষয়ে সংগঠনটির নেতাদের দাবি, সিন্ডিকেট মুক্ত থেকে বাজার সম্প্রসারণের কাজ করছেন তারা। এ সময় নিজেদের বক্তব্য তুলে ধরেন সিনিয়র সহসভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজ। বলেন, এসব বিবাদেই বিদেশে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বাংলাদেশি শ্রমবাজার। আমরা সবাই একমত যে আমরা কোন সিন্ডিকেটের পক্ষে যাবো না। সংগঠনটির শীর্ষ নেতারা দ্বন্দ্বে জড়ালেও, একমত ছিলেন জনশক্তি রপ্তানিকে সিন্ডিকেট মুক্ত করার ব্যাপারে।

 

channel24bd.tv