জেদ্দায় নেমে ইমিগ্রেশনে ১০ ঘণ্টা আটকা বিমানের ৭১ কর্মী

3

 

হজের ফিরতি ফ্লাইট পরিচালনার কাজে সৌদি আরবে যাওয়া বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৭১ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে জেদ্দা বিমানবন্দরে ১০ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর সে দেশে প্রবেশ করতে দিয়েছে সৌদি ইমিগ্রেশন।

বিমানের জেনারেল ম্যানেজার (এয়ারপোর্ট সার্ভিস) নুরুল ইসলাম হাওলাদার এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, “সৌদি ইমিগ্রেশন তাদের প্রবেশ করতে না দিয়ে ১০ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে ৭১ জনের সবাই সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি পায়। তারা এখন হাজীদের নিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন।”

কি কারণে তাদের সৌদি আরবে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছিল না এবং কী বিষয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে- এসব প্রশ্নে কোনো মন্তব্য করতে চাননি নুরুল ইসলাম হাওলাদার।

তবে গণমাধ্যমে আসা খবরে বলা হয়,বিমানের ওই কর্মকর্তাদের সৌদি আরবে ঢোকার কথা ছিল ৭ আগস্ট। কিন্তু তারা রোববার সেখানে পৌছালে সৌদি ইমিগ্রেশনের সন্দেহ হয়। সে কারণেই তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। দীর্ঘসময় দেন দরবারের পর তাদের সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ভারপ্রাপ্ত এমডি ফারহাত হাসান জামিল বলেন, “ওই কর্মকর্তারা পোস্ট হজের ম্যানপাওয়ার কভারেজের জন্য সেখানে গিয়েছিলেন। জেদ্দা বিমানবন্দরে তাদের একটু দেরি হয়েছে। ওখানে সময় নিয়ে সমস্যা হয়েছে।

“তাদের সম্ভবত আরেকটু আগে যেতে হত। তাদের একটু দেরি হয়েছে। আমরা তাদের ছেড়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলাম। এরপর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।”