কুমিল্লায় দাফনের ৪ মাস পর গৃহবধূর লাশ উত্তোলন

8
  • হাফেজ নজরুল

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পশ্চিম ইউনিয়নের পৈয়াপাথর গ্রামের হারুনুর রশীদের ছেলে রুবেল মিয়ার স্ত্রী লাইলী আক্তারের (২৫) ময়না তদন্তের জন্য দাফনের প্রায় সাড়ে চার মাস পর আদালতের নির্দেশে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার পৈয়াপাথর গ্রামের কবরস্থান থেকে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও মুরাদনগর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইফুল ইসলাম কমললের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করে সদর উপজেলার দিলালপুর কুমিল্লা পুলিশ ব্যুারো অব ইনভেস্টিগেশন(পিবিআই)। মামলার সূত্রে জানা যায়, প্রায় ১০ বছর পূর্বে জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার ষাইটশালা গ্রামের জিবন মিয়ার কন্যা লাইলী আক্তারের সাথে মুরাদনগর উপজেলার পৈয়াপাথর গ্রামের হারুনুর রশীদের ছেলে রুবেল মিয়ার সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়। এ দম্পতির দুটি কন্যা এবং একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে চলতি বছরের ২০মে রুবেল মিয়ার দুইভাইসহ কয়েকজনকে নিয়ে লাইলী আক্তারকে ব্যপক মারধর করে। এক পর্যায়ে ওই গৃহবধূর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়।