কারাগারে ৩ পুলিশ সদস্য

1

পকেটে ইয়াবা ঢুকিয়ে নিরাপরাধ ব্যক্তিকে ফাঁসাতে গিয়ে জনতার হাতে আটক ও গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের বাঁশতৈল ফাঁড়ির ৩ পুলিশ সদস্য ও এক সোর্স। ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় তোজাম্মেল ও হালিম নামের আরও দুই পুলিশ সদস্য। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মির্জাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সায়েদুর রহমান। আটককৃতরা হলেন বাঁশতৈল ফাঁড়ির এএসআই রিয়াজুল ইসলাম, কনস্টেবল গোপাল সাহা ও রাসেল। এছাড়াও আটক হয়েছেন তাদেরই সোর্স হাসান মিয়া।
এ ঘটনায় টাঙ্গাইলের সখিপুর থানায় মাদক আইনে মামলা দায়েরের পর শুক্রবার তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমির হোসেন। ঘটনাসূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার  সন্ধ্যায় এএসআই রিয়াজের নেতৃত্বে ৫ সদস্যদের একটি পুলিশ টিম টাঙ্গাইলের সখিপুর থানাধীন হাতিয়া রাজাবাড়ি এলাকার ভাতকুড়া গাবিলার বাজারে গিয়ে ওই এলাকার ফরহাদ মিয়ার ছেলে বজলুুর পকেটে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করেন ওই পুলিশ সদস্যরা। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে ওই পুলিশ সদস্যদের আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে মির্জাপুর থানার পুলিশ ও সখিপুর থানার ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে।।