ইতালিতে বাংলাদেশী যুবকের সততা

1

ইতালির রোমে সততার প্রমাণ দিলেন এক বাংলাদেশী যুবক মোহসেন রাসেল (২৩)। তিনি রোমের রাস্তায় একটি ওয়ালেট পেয়েছিলেন। তার ভিতর ছিল দুই হাজার ইউরো। বাংলাদেশী টাকায় যার পরিমাণ প্রায় দুই লাখ টাকা। রাসেল ওই টাকা নিজের পকেটে না ভরে খুঁজে বেরিয়েছেন এর মালিককে। অবশেষে তাকে খুঁজে পেয়ে তুলে দেন তার হাতে। এ সময় মালিক খুশি হয়ে তাকে পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু পুরস্কারের অর্থ নিতে অস্বীকৃতি জানান রাসেল। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি।

ঘটনাটি শুক্রবারের। এদিন ইতালির রাজধানী রোমের ফুটপাতে একটি ওয়ালেট খুঁজে পান রাসেল। তিনি সরাসরি চলে যান পুলিশে। পরে পুলিশই ওই ওয়ালেটের মালিককে খুঁজে বের করে। তার হাতে নিজের অর্থ তুলে দেয়ার জন্য ছোট্ট একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পুলিশ। সেখানে ডাকা হয় রাসেলকে। রাসেল নিজের হাতে ওই ইউরো তুলে দেন মালিকের হাতে। এ সময় তার সততার জন্য ধন্যবাদ জানানো হয়। জবাবে রাসেল বলেন, আমি তো বড় কোনো কিছু করে বসিনি। ব্যতিক্রমী কিছুও করিনি। স্রেফ ওই অর্থটা আমার ছিল না। তাই এর মালিকের হাতে তুলে দিতে পেরে ভাল লাগছে। ওয়ালেটের ভিতর কত ইউরো ছিল তা আমি জানতাম না। কারণ, গুনে দেখিনি। যেভাবে পেয়েছিলাম, ঠিক সেভাবেই পুলিশের কাছে নিয়ে গিয়েছি। আমি সৎ থাকতে চেয়েছি। আমার পরিবারের কাছ থেকে শিখেছি এই সততা।

ওই ওয়ালেটের ভিতর শুধু ইউরোই ছিল এমন না। ছিল বেশ কয়েকটি ক্রেডিট কার্ড, একটি ড্রাইভিং লাইসেন্স, ব্যক্তিগত পরিচয়পত্রের ডকুমেন্টস। বাংলাদেশী যুবক রাসেল মধ্য রোমে একটি ছোট্ট দোকান চালান। এই শহরেই সাত বছর ধরে তার বসবাস। তিনি যে ওয়ালেট পেয়েছেন তার মালিক স্থানীয় একজন ব্যবসায়ী। রাসেল বলেছেন, যদি তিনি একবার তার দোকান দেখতে যেতেন! হ্যাঁ, রাসেলের খায়েস পূরণ করেছেন ওই ব্যবসায়ী। এখন তিনি রাসেলের দোকানের নিয়মিত একজন কাস্টমার।