‘আমি দেশে ফিরতে পেরে আনন্দিত’

0

ডেস্ক রিপোর্ট : অবশেষে বিজিবি সদস্য নায়েক আব্দুর রাজ্জাককে ফেরত দিয়েছে বিজিপি। টানা ৯ দিনের মাথায় মিয়ানমার থেকে বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় ফিরে এসেছেন বহুল আলোচিত বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) নায়েক আবদুর রাজ্জাক। টেকনাফ সীমান্তের নাফ নদী তীরের ইমিগ্রেশন ঘাটে বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে এসেই আলোচিত এই বিজিবি সদস্য রাজ্জাক সংবাদকর্মীদের বলেন-‘আমি মুক্ত হয়ে দেশে ফিরতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত।’

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০ টার সময় মিয়ানমার এন্ট্রি/এক্সিট পয়েন্ট-১ এর ‘দেওয়ান নান্দি হল’ এ ৪২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এবং মিয়ানমার ২ বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চ এর মধ্যে এক পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ পতাকা বৈঠক শেষেই আব্দুর রাজ্জাককে ফেরত আনা হয়। উক্ত পতাকা বৈঠকে বিজিবি’র পক্ষে ৭ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন টেকনাফ ৪২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক, লেঃ কর্ণেল মোঃ আবুজার আল জাহিদ, এবং মিয়ানমার পক্ষে নেতৃত্ব দেন ২ বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চ অধিনায়ক,  লেঃ কর্ণেল থি হান।

উক্ত পতাকা বৈঠকে ৭ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের অধিনায়ক ছাড়াও স্টাফ অফিসার মেজর মাহবুব সাবের ও মেডিক্যাল অফিসার মেজর মোঃ শাহ আলম উপস্থিত ছিলেন। উক্ত পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে গত  ১৭ জুন  নাফ নদীতে টহলরত অবস্থায় বিজিপি কর্তৃক অপহৃত ৪২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সদস্য নায়েক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক’কে তার ব্যক্তিগত অস্ত্র (এসএমজি), ম্যাগাজিন এবং গোলাবারুদসহ ফেরত আনা হয়।

এক প্রতিক্রিয়ায় দেশে ফেরত আসা বিজিবি নায়েক রাজ্জাক বলেন, ‘নদীতে টহলরত অবস্থায় আমাকে সেদিন অপহরণ করা হয়, আমি বর্তমানে সুস্থ আছি।’ টেকনাফ ৪২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক, লেঃ কর্ণেল মোঃ আবুজার আল জাহিদ জানান, দু দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর মধ্যে সৌর্হাদ্যপূণ পরিবেশে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে এ ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

উল্লেখ্য, অপহৃত নায়েক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক’কে বিজিপি থেকে ফেরত গ্রহণের প্রাক্কালে মেডিক্যাল অফিসার কর্তৃক স্বাস্থ্য চেকআপ করা হয়। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল অপহৃত নায়েক মোঃ আব্দুর রাজ্জাক’কে নিয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সন্ধ্যা পৌনে ৭ টার দিকে  ফিরে আসেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ জুন ভোরে নাফ নদীর জইল্যারদিয়া সংলগ্ন বাংলাদেশ জলসীমানায় নিয়মিত টহল দেয়ার সময় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বিজিপি অতর্কিতে এসে বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করে। এতে একজন বিজিবি সদস্য গুলিবিদ্ধ হন এবং বিজিপির অপর সদস্য নায়েক আবদুর রাজ্জাককে বিজিপি অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর থেকেই বিজিবি পতাকা বৈঠকে বসার জন্য বিজিপির নিকট কয়েক দফা চিঠি প্রদান করে। অবশেষে আজ অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকের পর অপহৃত নায়েক রাজ্জাককে ফেরত দেয়া হয়।